1. bpdemon@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
  2. ratulmizan085@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
মাধবপুরে মৌলানা আছাদ আলী ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি ফরম পূরনে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ
বাংলাদেশ । শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ।। ১২ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি
ব্রেকিং নিউজ
এক মিনিটে ৮টি ক্রিম বিস্কুট খেয়ে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড এ আবেদন । বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেলেন সাকিব আল হাসান অবরোধের প্রতিবাদে ইবি ছাত্রলীগের মোটরসাইকেল শোডাউন অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে ফুলবাড়ী প্রেসক্লাবের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন বিএনপি জামায়াতকে অগ্নি সন্ত্রাসের পথ ছেড়ে নির্বাচনে আসার আহবান-এমপি বাহার হত্যা মামলার রহস্য উন্মোচনে  সৈয়দপুর পুলিশের সাফল্য, গ্রেফতার ৩ কুলাউড়ায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ সুপারের তদারকি জাপার সদস্য সচিবের বিরুদ্ধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ কুমিল্লায় হরতাল-অবরোধে ২২ পিকেটিং-ভাংচুর মামলা গ্রেফতার ১০৪ ইলিশ কম, পাঙ্গাস পাওয়ার আসায় মেঘনায় ছুটছে জেলেরা

মাধবপুরে মৌলানা আছাদ আলী ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি ফরম পূরনে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ

পিন্টু অধিকারী :
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৪ জুলাই, ২০২২
  • ১১৯ বার পড়েছে

হবিগঞ্জের মাধবপুরে মৌলানা আছাদ আলী ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি ফরম পূরনে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। বোর্ড নির্ধারিত ফি সহ অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার কারনে অনেক অসচ্ছল শিক্ষার্থী ফরম পূরন করতে গিয়ে হিমশিম খেতে হয়েছে। শুধু বোর্ড ফি দিয়ে শিক্ষার্থীরা ফরম পূরন করতে চাইলে কলেজ কর্তৃপক্ষের অনড় অবস্থানের কারনে কলেজের নির্ধারিত টাকা দিয়েই ফরম পূরন করতে হয়েছে।

শিক্ষাথীরা জানান, করোনা চলাকালীন সময়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় কলেজে কোন পাঠ হয়নি। এছাড়া করোনা মহামারীর কারনে অনেক শিক্ষার্থী পরিবার কর্ম হারিয়ে দারিদ্র সীমার নিচে চলে যায়। চলতি হঠ্যাৎ বন্যায় অনেক শিক্ষার্থী পরিবার পানিবন্দি হয়ে অভাব অনটনের মধ্যে দিন কাটায়।

এমন অবস্থায় মাধবপুর মৌলানা আছাদ আলী ডিগ্রী কলেজে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরন শুরু হয়। ৬জুলাই ছিল ফরম পূরনের শেষ দিন। মানবিক ও বানিজ্য শাখায় ফরম পূরন ফি ছিল ২১শ টাকা। বিজ্ঞান শাখায় ২৫শ টাকা। কিন্তু কলেজের বেতন ও অন্যান্য ফি সহ ফরম পূরনে দিতে হয়েছে ৬ হাজার থেকে ৭হাজার টাকা পর্যন্ত।

করোনা ও বন্যার পরিস্থিতিতে ফরম পূরনে অতিরিক্ত টাকা দিতে গিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের ধার দেনা করতে হয়েছে। করোনা ও বন্যাজনিত কারনে বোর্ড ফি ছাড়া অন্যান্য ফি মওকুপ করা হলে ভাল হতো। কলেজের অধ্যক্ষ জাহির উদ্দিন বলেন, বোর্ড নির্ধারিত ফরম ফি সহ কলেজের বকেয়া পাওনা নেওয়া হয়েছে।

অতিরিক্ত কোন টাকা নেওয়া হয়নি। সিলেট শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডঃ রমা বিজয় সরকার জানান, ফরম পূরনে বোর্ড নির্ধারিত ফি ছাড়া খুব বেশি টাকা নেওয়ার কথা নয়। তার পরও খোঁজ খবর নিয়ে অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  
প্রকাশক কর্তৃক জেম প্রিন্টিং এন্ড পাবলিকেশন্স, ৩৭৪/৩ ঝাউতলা থেকে প্রকাশিত এবং মুদ্রিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Hi-Tech IT BD