সাভারে অবৈধ ইটভাটায় পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযান 

85
তৌকির আহাম্মেদ: সাভারে অবৈধ ভাবে গড়ে ওঠা ইটভাটা উচ্ছেদে অভিযান শুরু করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর। অভিযান চলাকালে দুপুর পর্যন্ত তিনটি ভাটা ভেকু দিয়ে গুড়িয়ে দেয়ার পাশাপাশি ১৩ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। বুধবার সকাল ১০ টার দিকে পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মাকসুদুল ইসলামের নের্তৃত্বে আমিনবাজারের সালেহপুর এলাকার তিতাস ব্রিকস, মিতালী ব্রিকস ও এমএসএম ব্রিকস নামে তিনটি ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে এসময় পরিবেশ অধিদপ্তরের ঢাকা জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক শাহেদা বেগম ও সহকারী পরিচালক শরিফুল ইসলামসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া যে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক বলেন, রাজধানীর পাশে আমিন বাজার ও আশপাশের এলাকায় অবৈধ ভাবে গড়ে ওঠা অন্তত ৫০টি ইটভাটায় দীর্ঘদিন ধরে ইট পোড়ানো হচ্ছে। পরিবেশ দূষণ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকাসহ নানা অভিযোগে এসব ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। সকালে প্রথমে আমিনবাজারের সালেহপুর এলাকার তিতাস ব্রিকস ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করেন তারা। এসময় ইটভাটাটিকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। গুড়িয়ে দেওয়া হয় ইটভাটার বেশিরভাগ অংশ। তবে তাৎক্ষণিক জরিমানার টাকা পরিশোধ করতে না পারায় ভাটার মালিক ফয়সালকে আটক করা হয়। পরে জরিমানা আদায়ের পর তাকে ছেড়ে দেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট। পরে পার্শ্ববর্তী মেসার্স মিতালী ব্রিকস নামে অপর একটি ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে একই অভিযোগে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় ইট ভাটাটির চুল্লিসহ বেশকিছু অংশ গুড়িয়ে দেওয়া হয়। এরপর এমএসএম ব্রিকস নামে আরেকটি ইটভাটার ছাড়পত্র ও অনুমোদন সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র না থাকায় তিন লাখ টাকা জরিমানা আদায় এবং ভাটার বেশিরভাগ অংশ গুড়িয়ে দেওয়া হয়। পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাকছুদুল ইসলাম জানান,উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী ঢাকার চারপাশের বিভিন্ন জেলার অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদে অভিযান চলছে। এর অংশ হিসেবে আজ সাভারে অভিযান চালিয়ে অবৈধ এসব ইটভাটা গুঁড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, আগে ইটভাটার আংশিক ভেঙে দিয়ে বেশি টাকা জরিমানা করা হতো। কিন্তু ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে কম জরিমানা করে ভাটার কার্যক্রম একেবারেই বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে।