সরাইলে পেঁয়াজ দু’শ ,সবজির দাম আকাশচুম্বী

81
মোঃ তাসলিম উদ্দিন: সরাইল উপজেলার মোড়ে মোড়ে দোকানে ও বিভিন্ন বাজারগুলোতে পেঁয়াজের দাম এখনও আকাশচুম্বী। কয়েক দিন ধরে পেঁয়াজের বাজারে অস্হিরতা চলছে। এরই লেসধরে এবার পেঁয়াজের দাম কেজি প্রতি ডাবল সেঞ্চুরিতে গিয়ে ঠেকেছে। আজ বৃহস্পতি বার সরাইল উপজেলার মোড়ে- পাড়ার বাজারওমুদি দোকান গুলিতে প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ ১৯০ টাকা থেকে ২০০ টাকা বিক্রি হলেও কোথাও কোথাও তারা ২২০ টাকা দাম চাওয়া হচ্ছে। পাইকারিতে দাম বাড়ারপ্রভাব পড়েছে উপজেলার খুচরা বাজারে-আজ সরাইলের বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, একেক বাজারে একেক রকমের দাম, এমনকি একই বাজারে ও দামের পার্থক্য রয়েছে, অনেক দোকানি এমন করে জানান,গত কয়েক দিন ধরে তিনি দোকানে পেঁয়াজ বিক্রি করেন না। প্রতি ঘন্টা ১০ থেকে ২০ টাকা করে পেঁয়াজের দাম বাড়ছে। যার করণে ক্রেতাদের সাথে দোকানীদের প্রায় সময়ই মনোমালিন্য হচ্ছে। এসব কারণে তিনি পেঁয়াজ বিক্রি ছেড়ে দিয়েছেন। এর সঙ্গে কয়েক সপ্তাহ ধরে সব ধরনের সবজিও বিক্রি হচ্ছে চড়া দামে। যদিও সরবরাহের ঘাটতি নেই। ডিমও বাড়তি দরে বিক্রি হচ্ছে।  সকালে কালিকচ্ছ, উচালিয়া পাড়ার মোড়ে, বিশ্ব রোড়,সকাল বাজারে, শাহবাজপুর, চুন্টা, অরুয়াইল ওআখঁতারা বাজার ঘুরে এসব তথ্য জানা গেছে। এদিন শিম বিক্রি হয় ৬০-৮০ টাকা কেজি দরে। প্রতি পিস ফুলকপি ৩০-৪০ টাকা ও মুলা২০- টাকা বিক্রি হয়।ছোট আকারের লাউ প্রতি পিস ৩০-৩৫ টাকা, টমেটো ৭০-৮০টাকা, আলো নতুন ৬০- ২৫ পুরাণ,বেগুন  ২০-২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়। সরাইল উপজেলা ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী অফিসারও সহকারী কমিশনার ( ভূমি) ফারজানা প্রিয়াঙ্কা জানান, আমরা বাজার মনিটরিং কাজ সবসমই  করছি, তবে  উচ্চ দামে কোন ব্যবসায়ী পেঁয়াজ বা সবজি বিক্রি করতে পারবেনা। বাজারে প্রতিনিয়ত অভিযান চলচে। জনগণকে কষ্ট দিয়ে কোন পণ্যের দাম বেশি রাখলে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর ব্যবস্থা নেবেন।