উল্লাপাড়ায় গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু, লাশ উদ্ধার

81

উল্লাপাড়া প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় নার্গিস পারভিন (২২) নামের এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু।ঘটনা স্থল থেকে নিহত গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে উল্লাপাড়া মডেল থানা পুলিশ। নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট্য শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহত পরিবারের অভিযোগ এটি হত্যাকান্ড।নিহত বাঙ্গালা ইউনিয়নের শিমলা গ্রামের মোঃ কবির হোসেনর স্ত্রী। জানা যায়, উপজেলার বাঙ্গালা ইউনিয়নের বিনায়েতপুর গ্রামের আফজাল শেখের মেয়ে নার্গিস পারভিনের সাথে শিমলা মধ্যপাড়া গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে কবির হোসেনের চার বছর আগে ভালোবেসে বিয়ে হয়।বিয়ের কিছু দিন পর থেকে চলে নিহত নার্গিসের উপর চালায় অমানুষিক নির্যাতন দাবী নিহতের পরিবারের।দীর্ঘ দিন যাবৎ স্বামীর পরকিয়া করে আসছিল।স্ত্রী এই পরকিয়া প্রেমে বাধা দেয়ায় তাকে হত্যার পর ঘরের পাশের কাঁঠাল গাছের সহিত ঝুলিয়ে রাখে বলে অভিযোগ স্বজনদের। ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী ও শ্বশুরবাড়ীর লোকজন পলাতক রয়েছে। মঙ্গলবার দুপরে উপজেলার বাঙ্গালা ইউনিয়নের শিমলা মধ্য পাড়া গ্রাম থেকে তার লাশটি উদ্ধার করা হয় উল্লাপাড়া মডেল থানা পুলিশ।নিহতের মা লাইলী বেগম,বড় ভাই নান্নু ও তার স্বজনদের অভিযোগ ৪ বছর আগে আব্দুল খালেকের ছেলে,কবির হোসেনের সাথে বিয়ে হয় নার্গিসের। একপর্যায়ে কবির একজন নারীর সাথে পরকিয়ায় জড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে স্বামী স্ত্রীর সাথে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ হতো।এরই জেরে মঙ্গলবার রাত্রীতে তাকে হত্যার পর গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঘরের পাশের কাঁঠাল গাছের সাথে ঝুলিয়ে রাখে।

উল্লাপাড়া মডেল থানার দায়িত্ব প্রাপ্ত (ওসি) তদন্ত গোলাম মোস্তফা জানান স্থানীয়দের সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।ঘটনাটি হত্যাকান্ড নাকি আত্মহত্যা ময়না তদন্তের পরে জানা যাবে।