ধুনটে ভাইঝিকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে চাচা গ্রেপ্তার

54

ইমদাদুল হক ইমরান: বগুড়ার ধুনট উপজেলায় চার বছর বয়সের ভাইঝিকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে আব্দুর রাজ্জাক (৫০) নামে শিশুটির চাচাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আব্দুর রাজ্জাক উপজেলার গোপালনগর ইউনিয়নের মোহাম্মাদপুর গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে। মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে আদালতের মাধ্যমে তাকে বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে চাচার যৌন নিপীড়নে অসুস্থ শিশুটিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে ৭দিন পর সোমবার সন্ধ্যার দিকে বাড়িতে ফিরে এসেছে। এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে সোমবার আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে শেরপুর শহরের ধুনট মোড় এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, যৌন নির্যাতনের শিকার শিশুটি উপজেলার মোহাম্মাদপুর গ্রামের এক দিনমজুরের মেয়ে। একই বাড়িতে বসবাস করে আব্দুর রাজ্জাক ও শিশুটির হতদরিদ্র পরিবারের লোকজন। তিন সন্তানের জনক আব্দুর রাজ্জাক সম্পর্কে শিশুটির চাচা হয়।

গত ৫ নভেম্বর বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে শিশুটি বাড়ির উঠানে খেলা করছিল। এ সময় আব্দুল রাজ্জাক কৌশলে শিশুটিকে কোলে তুলে নিজ ঘরে নিয়ে যায়। ঘটনার সময় ওই বাড়িতে লোকজন না থাকার সুযোগে ঘরের ভেতর শিশুটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে রাজ্জাক। তখন শিশুটির চিৎকারে বাড়ির লোকজন ঘটনাস্থলে পৌছে অসুস্থ অবস্থায় ওই শিশুকে উদ্ধার করে।

এদিকে যৌন নির্যাতনের শিকার শিশুটিকে ওই দিন রাত ১২টার দিকে ধুনট উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। কিন্ত সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে রাতেই শিশুটিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান বলেন, এ মামলার আসামীকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিম শারীরিকভাবে সুস্থ রয়েছে। মেডিকেল রির্পোট অনুযায়ী তদন্ত সাপেক্ষে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।#