বান্দরবানে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এর কারণে নদীপথে পর্যটক প্রবেশে প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা

35

বান্দরবান প্রতিনিধি: বান্দরবানের থানচি পর্যটন কেন্দ্রগুলো ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে উপজেলা ও জেলা প্রশাসন। থানচি উপজেলার দুর্গম পর্যটন কেন্দ্র গুলির মধ্যে রাজা পাথর, রেমাক্রী, নাফাকুমসহ এসব ঝুঁকিপূর্ণ পর্যটন কেন্দ্র গুলি ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। শনিবার (৯ নভেম্বর) সকালে উপজেলা ও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পর্যটকদের দুর্গম প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়।

সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার-শনিবার নিয়মিত বন্ধসহ ঈদে মিলাদুন্নবীর তিনদিনের ছুটিতে থানচি উপজেলার বহুল পরিচিত পর্যটন কেন্দ্র গুলি ভ্রমণের উদ্দেশ্যে অনেক পর্যটকের সমাগম হয়। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল ও বৈরী আবহাওয়াতে এসব পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে নদীপথে যাওয়ার সময় দুর্ঘটনার আশঙ্কা থাকায় থাকায় উপজেলা ও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়।

এ দিকে বৈরী আবহাওয়া সত্ত্বেও থানচির দুর্গম এই পর্যটনকেন্দ্র গুলিতে বহু পর্যটক রয়েছে বলে জানা গেছে। থানচি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ওইসব পর্যটকদের নিরাপদে থানচি সদরে নিয়ে আসার উদ্যোগ নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে থানচি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফুল হক মৃদুল জানান, সারাদেশের মত ঘূর্ণিঝড় বুলবুল কে কেন্দ্র করে ও বান্দরবানে বৈরী আবহাওয়ার কারণে থানচি উপজেলার নদীপথে দুর্গম পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে পর্যটকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি ভালো থাকলে আবার পর্যটকরা সেখানে ভ্রমণে যেতে পারবে। এ বিষয়ে বান্দরবান জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকেও এ বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here