ধুনটে নারীকে ধর্ষণ, বখাটে শ্রীঘরে

30

ইমদাদুল হক ইমরান: বগুড়ার ধুনট উপজেলায় প্রেমে সাড়া না পেয়ে স্বামী পরিত্যক্তা নারীকে ধর্ষণ করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়েছে রুবেল হোসেন (২১) নামে এক বখাটে। রুবেল উপজেলার গোপালনগর ইউনিয়নের সাতটিকরি গ্রামের নুর মোহাম্মাদের ছেলে। আইনী প্রক্রিয়াশেষে শুক্রবার দুপুরের দিকে ধুনট থানা থেকে আদালতের মাধ্যমে তাকে বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গোপালনগর ইউনিয়নের ডিগ্রীর চর গ্রামের প্রান্তিক কৃষকের স্বামী পরিত্যক্তা মেয়ে একই গ্রামে তার মামার বাড়িতে বসবাস করে। পার্শ্ববতী গ্রামের বখাটে রুবেল ওই নারীকে প্রায় ৪ বছর ধরে প্রেম প্রস্তাব দেয়। কিন্ত রুবেলের প্রেমে সাড়া দেয়নি মেয়েটি।

ফলে রাস্তায় বের হলেই সুযোগ বুঝে মেয়েটিকে উত্যক্ত করে রুবেল। অত্যাচারে অতিষ্টি হয়ে মেয়েটি এ বিষয়টি রুবেলের পারিবারের নিকট বিচার প্রার্থী হয়। এতে মেয়েটির উপর ক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠে বখাটে রুবেল। এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে মেয়েটির বাড়িতে গিয়ে কৌশলে ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষন করে রুবেল।

এসময় মেয়েটির চিৎকারে প্রতিবেশীরা ঘটনাস্থলে পৌছে রুবেলকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে। সংবাদ পেয়ে থানা পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থল থেকে রুবেলকে গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার মেয়েটি বাদী হয়ে রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে ধুনট থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করে।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, এ ঘটনায় মামলা দায়ের করে আসামীকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিমের শারীরিক পরীক্ষার জন্য শনিবার সকালের দিকে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here