সাভারে বনফুলসহ ৪ বেকারীতে র‍্যাবের অভিযান, ১৫ লাখ টাকা জরিমানা

71
তৌকির আহাম্মেদ: বিএসটিআই অনুমোদন ছাড়া এবং নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য তৈরীর অভিযোগে সাভারের হেমায়েতপুরের বনফুল কোম্পানি লিমিটেড, ইসলাম বেকারী ও সেভেন স্টার বেকারী এবং আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকার বি বাড়িয়া বেকারী ও ইসলামীয়া বেকারীতে অভিযান চালিয়েছে র‍্যাব-৪ এর ভ্রাম্যমান আদালত।
এসময় ওইসব বেকারী কর্তৃপক্ষকে বিভিন্ন অংকের মোট ১৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় একজনকে ১৫ দিনের এবং আরো দুইজনকে তিন দিনের কারাদন্ড প্রদান করা হয়। মঙ্গলবার দিনব্যাপী এ অভিযান পরিচালনা করেন র‍্যাব-৪।
 র‍্যাব-৪ সূত্র জানান, দীর্ঘদিন ধরে হেমায়েতপুর এলাকায় অবস্থিত বনফুল বেকারী, ইসলাম বেকারি ও সেভেন স্টার বেকারির কর্তৃপক্ষ অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে নিম্নমানের ও মেয়াদহীন খাবার তৈরি করে আসছিল। পঁচা সিড়া, ডিম, মেয়াদহীন ডালডা,তেল ও ঘি ইত্যাদি দিয়ে বিস্কুট, চানাচুর, কেকসহ বিভিন্ন প্রকার খাদ্যদ্রব্য তৈরি করে আসছিল তারা।
স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে র‍্যাব-৪ ওই কারখানায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় নোংরা পরিবেশে খাবার তৈরির অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিজাম উদ্দিন বনফুল বেকারীকে ৪ লাখ টাকা, ইসলাম বেকারিকে ৫ লাখ টাকা সহ একজনকে ১৫দিন ও অন্য দুজনকে তিনদিনের কারাদন্ড প্রদান করেন এবং একই এলাকার সেভেন স্টার বেকারিকে ৩ লাখ ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এসময় কারখানা কর্তৃপক্ষকে সর্তক করা হয়।
এদিকে, র‍্যাব-৪ সাভারের আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকাতেও বিএসটিআই এর অনুমোদন ছাড়া দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা বি.বাড়িয়া বেকারি ও ইসলামীয়া বেকারিতে অভিযান চালায়।
নিম্নমানের পণ্য তৈরী ও বাজারজাত করায় বি-বাড়িয়া বেকারিকে ১ লাখ ও ইসলামীয়া বেকারিকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করেন।
অভিযান শেষে র‍্যাব-৪ এর (এএসপি) উনুমং বলেন, নোংরা পরিবেশে খাবার তৈরি করা দন্ডনীয় অপরাধ। অভিযানে বনফুলসহ অরো ৪ কারখানার পরিবেশ নোংরা ও অপরিচ্ছন্ন পাওয়ায় কারখানাগুলোকে ১৫ লাখ আশি হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া ভেজাল খাদ্যের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে। ভেজাল খাদ্য উৎপাদন করার প্রমাণ পেলে, কোন কারখানাকে ছাড় দেয়া হবে না।