প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় স্কুলছাত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যার চেষ্টা

126

এস,এম,স্বাধীন: প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যার চেষ্টা করেছে স্থানীয় এক বখাটে ও তার বন্ধুরা। সোমবার শরীয়তপুর শহরের পালং উচ্চ বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত বখাটের নাম রিফাত।

দীর্ঘদিন ধরে খেলসি গ্রামের কবির শিকদারের ছেলে বখাটে রিফাত ওই ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এতে সে রাজি না হওয়ায় সোমবার আড়াইটার দিকে পরীক্ষা শেষে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে ৪-৫ বন্ধুকে নিয়ে রিফাত তার গতিরোধ করে। এ সময় রিফাত ছুরি দিয়ে তাকে আঘাত করে পালিয়ে যায়। ছাত্রীটি তখন রাস্তায় পড়ে গেলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

স্কুলছাত্রীর বড় বোন জানান, দীর্ঘদিন ধরে বখাটে রিফাত তার বোনকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে রিফাত তার বন্ধুদের নিয়ে বিরক্ত করতো। প্রেমের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় বোনকে প্রায়ই হত্যার হুমকি দিত রিফাত।

আহত সুরভির মা জানান রিফাত আমার মেয়েকে পছন্দ করে অনেকদিন যাবত বিরক্ত করে আসতেছে। প্রেমের প্রস্তাবে আমার মেয়ে রাজি না হওয়ায় আজকে স্কুল থেকে যাওয়ার পথে পিছন থেকে ছুরি দিয়ে আঘাত করে। ঐসময় লোকজন আসায় আর মারতে পারে নাই মানুষ না আসলে আমার মেয়েকে আজকে মেরে ফেলত।

পালং উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ হালিম শেখ বলেন আমাদের স্কুল সাড়ে বারোটায় ছুটি হয়ে যায় স্কুল থেকে যাওয়ার পথে এই ঘটনাটি ঘটে তখন আমি স্কুলে উপস্থিত ছিলাম না। আমি খবর পেয়ে আমার স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ মিজানুর রহমানকে বলি আপনি ঘটনাস্থলে যান এবং আহত ছাত্রীকে হাসপাতালে নিয়ে দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। আমরা চাচ্ছি যে মেয়েরা সুস্থভাবে ভাল ভাবে স্কুলে আসতে পারে। আর প্রশাসনের কাছে আমার অনুরোধ যারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের যেন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হয়। পালং মডেল থানার ওসি আসলাম উদ্দিন বলেন, সংবাদ পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু হয়েছে।