সিসিটিভির সূত্র ধরে আশুলিয়ায় হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন গ্রেপ্তার-৩

131

তৌকির আহাম্মেদ: মহাসড়কের সিসি টিভির ফুটেজের সূত্র ধরে ৭২ ঘন্টার মাথায় আশুলিয়ায় হানিফ বাস কাউন্টারকর্মী রবিউল ইসলামের হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে  পুলিশ। এ ঘটনায় ডাকাত দলের ৩ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রোববার সকালে আশুলিয়া থানা পুলিশ এই তথ্য নিশ্চিত করেন। এর আগে শনিবার রাতে তাদের সাভারের হেমায়েতপুর থেকে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয়। এসময় ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত বাসটিও উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত ডাকাতরা হলো-খুলনার দিঘলিয়া থানার সেনাটি গ্রামের মৃত আলম খাঁর ছেলে কবির হোসেন ওরফে রুবেল, সাভারের জয়নাবাড়ি গ্রামের মো. নুর আলমের ছেলে সজিব হোসেন ও একই এলাকার আবদুল গিয়ানের ছেলে মো. রবিউল। এরা দিনে বিভিন্ন কারখানার শ্রমিক আনা নেয়া করে। রাতে যাত্রী বেশে ডাকাতি করে।

আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (ইন্টিলিজেন্স) মো. তছলিম উদ্দিন জানায়, যাত্রী বেশে বাসে ডাকাতির কবলে পড়ে নিজেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য পরিচয় দেয়াই কাল হয়েছিলো রবিউল ইসলামের। ডাকাতরা তখন তাকে হত্যা করে মহাসড়কের পাশে ফেলে দেয়। এঘটনায় বাকী ডাকাতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মুল ফটকের বিপরীতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পাশ থেকে রবিউল ইসলামের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে অজ্ঞাতদের আসামী করে নিহতের মা বাদী হয়ে আশুলিয়া থানা মামলা দায়ের করেন।