দুমকিতে উপজেলা হাসপাতাল টু ভুঁইমালী বাড়ি সড়কের বে-হাল দশা

136

সোহাগ হোসেন: পটুয়াখালীর দুমকিতে এলজিইডির উপজেলা হাসপাতাল টু ভুইমালী বাড়ি হয়ে জনতা কলেজ সড়কের আধাপাকা হেরিংবন্ড সড়কের অনেক স্থানে ভেঙ্গেচুড়ে বিশাল বিশাল গর্ত আর কাদায় পরিপূর্ণ হওয়ায় যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এতে সড়কের দু’ পাশের ৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শত শত ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক-কর্মচারী ও এলাকাবাসীদের নিত্য চলাচলে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। বিশেষত: হাসপাতালের মুমূর্ষ রুগী পরিবহেনর সহজ পথ বন্ধ হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছে অসুস্থ রুগী ও তাদের স্বজনসহ সাধারণ মানুষ।

উপজেলা কমপ্লেক্স চত্তর থেকে সরকারি জনতা কলেজ হয়ে ভুঁইমালী বাড়ি টু উপজেলা হাসপাতাল সড়কটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সড়ক। এলজিইডি’র এ সড়কের অগ্রভাগে দুমকি একে মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দুমকি নাসিমা কেরামত বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দুমকি একে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, দুমকি নাসিমা কেরামত আলী মহিলা কলেজ ও উপজেলা হাসপাতালের অবস্থান। প্রতিবছর এখানে পিএসসি, জেএসসি/ জেডিসি, এসএসসি/দাখিল, এইচএসসি/আলিম, ও ডিগ্রী/ফাজিল পরীক্ষার কেন্দ্র রয়েছে। এ সড়কের মাঝামাঝি দুমকি বিজনেস ম্যানেজমেন্ট এন্ড টেকনিক্যাল মহিলা কলেজ, দুমকি ইসলামিয়া সিনিয়র (ফাজিল) মাদ্রাসাসহ ৭/৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শত শত ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক-কর্মচারী ও এলাকাবাসীর নিত্য চলাচলের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি দীর্ঘদিন মেরামতের অভাবে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। সড়কের ৭/৮টি স্পটে ভেঙ্গেচুড়ে বিশাল বিশাল গর্তের সৃষ্টি হয়ে যানবাহন চলাচল অনেক আগেই বন্ধ হয়ে গেছে। এতে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে ৭/৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যায়নরত শত শত ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক কর্মকর্তা-কর্মচারী ও স্থানীয়দের। বিশেষত: উপজেলা হাসপাতালে মুমূর্ষু রুগী পরিবহনে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে। উপজেলার এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব, দুমকি একে মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: আলমগীর হোসেন জানান, পরীক্ষা কেন্দ্র ও উপজেলা হাসপাতালের সহজ যাতায়তের এ সংযোগ সড়কটি অত্যন্ত খারাপ অবস্থা হওয়ায় শিক্ষার্থীদের পাশাপশি স্থানীয়দের যাতায়তে কস্ট বেড়েছে। দুর্ভোগ লাঘবে শীঘ্রই সড়কটি সংস্কার করা দরকার। দুমকি বিজনেস ম্যানেজমেন্ট এন্ড টেকনিক্যাল মহিলা কলেজ অধ্যক্ষ মো: জামাল হোসেন জানান, রাস্তা খারাপ থাকায় বর্ষা মৌসুমে ছাত্রীদের উপস্থিতি আশংকাজনক হ্রাস পেয়েছে। একই অভিযোগ দুমকি এনকে আলী বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাজী মাকসুদুর রহমানের। তিনি বলেন, ভুঁইমালী বাড়ি সড়কটির বেহাল অবস্থার কারনে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় শিক্ষক ও ছাত্রীদের যাতায়তে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। তিনি জনদুর্ভোগ লাঘবে জরুরী ভিত্তিতে সড়কটি মেরামতের দাবি জানান। এবিষয়ে শ্রীরামপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো: আমিনুল ইসলাম সালাম এ প্রসঙ্গে বলেন, বিগত উপজেলা পরিষদের উন্নয়ন সভায় তিনি সড়কটির দুরাবস্থা উত্থাপন করে জরুরী ভিত্তিতে মেরামতের প্রস্তাব করেছেন। ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকেও প্রকল্প প্রস্তাব দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন।

উপজেলা প্রকৌশলী দিপুল চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, সড়কটি পাকা করণের প্রাক্কলনসহ প্রকল্প প্রস্তাব ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বরাদ্দ এলে অগ্রাধিকার বিবেচনায় সড়কটির কাজ শুরু করা হবে।