র‌্যাবের অভিযানে চোরাই তেলের কারবারি গ্রেফতার

67

নিজস্ব প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নে ছয়হিস্যা গ্রামে র‌্যাব-১১ অভিযান চালিয়ে গতকাল রাতে মৃত কাসেম সরকারের ছেলে চোরাই তেল ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম ও ১০ ব্যারেল চোরাই তেল সহ প্রতাপেরচর এলাকার সাহাবুদ্দিন প্রধানের দোকানের ম্যানেজার সেলিম রেজাকে গ্রেফতার করেছে। সাহাবুদ্দিন প্রধান দীর্ঘদিন চোরাই তেলের ব্যাবসা চালিয়ে আসছে বলে জানাযায়,তার দোকানের ম্যানেজারকে আটক করলেও সে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় র‌্যাবের ডিএডি আবু সৈয়দ বাদী হয়ে সাহাবুদ্দিনকে প্রধান আসামী করে সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা করেন।

দীর্ঘদিন যাবৎ চোরাই তেল কারবারির সাথে জড়িত রফিকুল ইসলাম তার ব্যবসা অবাধে চালিয়ে গেলেও এ যাত্রায় র‌্যাব-১১ এর হাত থেকে রেহাই পেলোনা রফিকুল।

চোরাই তেল ব্যবসায়ী রফিকুল, ইতিমধ্যে ঐ এলাকায় একটি সিন্ডিকেট করে সাধারণ কৃষকদের জমি জালিয়াতি ও জোরপূর্বক দখলে নিয়ে একটি কোম্পানির কাছে জমির মালিককে বাধ্য করেছে জমি বিক্রি করতে সেই সাথে নিরীহ মানুষের অনেক জমি জোর করেও দখলে নিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে এলাকাবাসীর।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসী জানায়, দীর্ঘদিন ধরে রফিকুল এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব চালিয়ে যাচ্ছে, তার বিরূদ্ধে মুখ খুললেই মামলা হামলা ও প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে মানুষকে স্তব্ধ করে দেয়। অবৈধ সকল অপকর্ম করে কালো টাকার পাহাড় গড়েছে সন্ত্রাসী রফিকুল। সে এলাকার কোন মানুষকেই মানুষ বলে গণ্য করেনা।

সোনারগাঁ উপজেলায় যখন চোরাই তেল ব্যবসায়ীদের বিরূদ্ধে র‌্যাব-১১ এর অভিযান চলছে তখনও থামছেনা সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী রফিকুলের চোরাই তেল বানিজ্য। শেষ পর্যন্ত র‌্যাব-১১’র হাতেই গ্রেফতার হলো রফিকুল।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ১৫ জুলাই রফিকুলের অত্যাচার থেকে রেহাইসহ মাদক ও চোরাই তেল ব্যবসা বন্ধের দাবীতে ঐ এলাকার তথা ছয়হিস্যা ও কান্দারগাঁও গ্রামের বাসিন্দাদের সাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার বরাবর পাঠানো হয়েছিলো।

লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, চোর রফিকুলের নেতৃত্বে একদল উচ্ছৃঙ্খল দাঙ্গাবাজ, পরধন লোভী মেঘনা নদীর চাঁদপুর মোহনা থেকে রাতের আধারে তেলের জাহাজ/ডিবি’র তেল চুরি করে থাকে, তার নিজস্ব বাহিনী দিয়ে চোরাইভাবে প্রায় ৭-৮ বছর যাবৎ অবৈধভাবে ব্যবসা করে কোটি কোটি টাকা ও অবৈধ সম্পদের মালিক বনে গেছেন সন্ত্রাসী রফিকুল । রাতের আধারে (পাম ওয়েল, সয়াবিন) তেল ভর্তি স্টিলের বোট দুইটি পিরোজপুর ইউনিয়নের ছয়হিস্যা গ্রামের পূর্ব পাশে নদীর পারে বাধা থাকে। সময় মতো রাতের আধারেই মেঘনা ঘাট দিয়ে এই তেল দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে পাচার করে দেয়।

জানাযায়,ছয়হিস্যা নিবাসী জয়নাল আবেদীনের ছেলে শামীম এই চোর রফিকুলের অপকর্মের প্রতিবাদ করলে তাকে তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। এনিয়ে একটি মামলা হয়, সে মামলায় চোর রফিকুল দীর্ঘদিন জেল হাজতে থেকেও তার মাদ ও চোরাই তেলের বানিজ্য বহাল তবিয়তে চালিয়ে আসছিল।

র‌্যাব-১১ এর ডিএডি মোস্তাফিজুর রহমান এই প্রতিনিধিকে জানায়,চোরাই তেল বোঝাই তিনটি স্টিলের বোর্ডসহ সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুরের ছয়হিস্যা গ্রামে নদীর পারে অভিযান চালিয়ে মৃত কাসেম সরকারের ছেলে চোরাই তেল কারবারি রফিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছি,এখনো পরিমাপ করা হয়নি কত ব্যারেল তেল তিনটি বোর্ডে রাখা ছিল। তিনি বলেন চোরাই কারবারিদের বিরূদ্ধে ,র‌্যাব- ১১ এর অভিযান অব্যাহত থাকবে।