বিএফআই লন্ডন চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হবে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’

82

শাহাদাৎ চৌধুরী শিপন: আলোচিত নির্মাতা রূবাইয়াত হোসেনের ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ছবিটি এবার ইউকেতে প্রিমিয়ার হতে যাচ্ছে। ৬৩তম বিএফআই লন্ডন চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হবে ছবিটি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রূবাইয়াত হোসেন নিজেই।

প্রথম ছবি মেহেরজান এবং দ্বিতীয় ছবি আন্ডার কনস্ট্রাকশনের পর রূবাইয়াত হোসেনের তৃতীয় ছবি মেড ইন বাংলাদেশ। বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়নে ও আত্মনির্ভরশীলতা অর্জনে পোশাকশিল্পের যে ভূমিকা আছে তার আলোকে দৃঢ়চেতা নারী পোশাক শ্রমিকদের সংগ্রাম ও সাফল্যের গল্প বলা হয়েছে মেড ইন বাংলাদেশ ছবিতে। উল্লেখ্য, সম্প্রতি টরেন্টো চলচ্চিত্র উৎসবে এ ছবিটির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার অনুষ্ঠিত হয়।

নির্মাতা রূবাইয়াত হোসেন জানালেন, আগামী ২ অক্টোবর থেকে ১৩ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে বিএফআই উৎসবে ছবিটি প্রদর্শিত হবে ডিবেট বিভাগে যেখানে ফ্রঁসোয়া ওযু, অ্যালেক্স গিবনি, টেরেন্স মালিক, আগনেস্কা হল্যান্ড, সিরো গুয়েরা এবং অন্যান্য উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র নির্মাতাদের সিনেমাও প্রদর্শিত হবে। ছবিটিতে অভিনয় করেছেন রিকিতা নন্দিনী, নভেরা হোসেন, দীপান্বিতা মার্টিন, পারভীন পারূ, মায়াবি মায়া, মুস্তফা মনোয়ার, শতাব্দী ওয়াদুদ, জয়রাজ, মোমেনা চৌধুরী, ওয়াহিদা মল্লিক জলি ও সামিনা লুৎফা প্রমুখ। দুটি অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিতা চৌধুরী ও ভারতের শাহানা গোস্বামী।

২০১৬ থেকে ছবিটির কাজ শুরূ করেন রূবাইয়াত হোসেন। লোকার্নো চলচ্চিত্র উৎসবের ‘ওপেন ডোরস’-এ অংশ নিয়ে চিত্রনাট্যের জন্য জিতে নেন আর্টে ইন্টারন্যাশনাল পুরস্কার। এছাড়া ছবিটি নির্মাণের জন্য পেয়েছেন ফ্রান্স সরকারের সিএনসি ফান্ড, নরওয়ে সরকারের সোরফন্ড প্লাস, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের ইউরিমাজ ফান্ড, ডেনমার্কের ডেনিশ ফিল্ম ইনস্টিটিউট ফান্ড ও টোরিনো ফিল্ম ল্যাবের অডিয়েন্স ডিজাইন ফান্ড।

ছবিটি প্রযোজনা করেছে ফ্রান্স, ডেনমার্ক, পর্তুগাল ও বাংলাদেশের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। অর্থাৎ ছবিটির প্রযোজক ফ্রঁসোয়া দ্য’ আক্তেমেয়ার (ফ্রান্স) ও আশিক মোস্তফা (বাংলাদেশ) এবং যৌথ প্রযোজক পিটার হিল্ডাল (ডেনমার্ক), পেদ্রো বোর্হেস (পর্তুগাল) ও আদনান ইমতিয়াজ আহমেদ (বাংলাদেশ)। বাংলাদেশের খনা টকিজ ও ফ্রান্সের লা ফিল্মস দ্য এপ্রেস-মিডির ব্যানারে নির্মিত ‘মেড ইন বাংলাদেশ’এর পরিবেশনা ও আন্তর্জাতিক বিক্রয় প্রতিনিধি ফ্রান্সের পিরামিড ফিল্মস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here