সৈয়দপুরে আ’লীগের কাউন্সিলে মুক্তিযোদ্ধাকে মারধর

121

শাহজাহান আলী মনন: নীলফামারীর সৈয়দপুরে আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে সভাপতি প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধাকে মারধরের ঘটনায় প্রতিবাদ সভা করেছে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ। আজ বিকেলে শহরের শহীদ ডাঃ জিকরুল হক সড়কস্থ কার্যালয়ে ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়। মুক্তিযোদ্ধা জিকরুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার একরামুল হক, শামসুল হক, ওয়াহেদ আলী, একেএম ফজলুল হক প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ২৮ আগস্ট উপজেলা আওয়ামীলীগের ২নং কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়ন শাখার কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। ভোট গণনায় মোখলেছুর-নজু প্যানেল এগিয়ে ছিল। ফলাফল ঘোষণার পূর্ব মুহুর্তে সভাপতি পদপ্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা মোখলেছুর রহমানের ওপর আকস্মিক হামলা চালায় প্রতিপক্ষের লোকজন। ওই মুক্তিযেদ্ধাসহ প্রায় ১০-১৫ জন আহত হন। মুক্তিযোদ্ধা মোখলেছুর রহমানের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার একরামুল হক বলেন, কাশিরাম ইউনিয়নের কাউন্সিলে মুক্তিযোদ্ধা মোখলেছুর রহমান ও নজু প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বি বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক চৌধুরী প্যানেলের চেয়ে অনেক ভোটে এগিয়ে ছিলেন। কিন্তু ফলাফল ঘোষণার দুই মিনিট আগে এনামুল হক চৌধুরী, তার ছেলে বুলবুল ও তাদের সাঙ্গপাঙ্গরা পরিকল্পিতভাবে রিটার্নিং অফিসারসহ আমাদের ওপর হামলা চালায়। আমরা অবিলম্বে এটার বিচার চাই এবং ওই কাউন্সিলের স্থগিত ফলাফল ঘোষণা চাই। অন্যথায় বৃহত্তর আন্দোলনসহ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ আগামীতে আওয়ামীলীগের কোন কার্যক্রমে অংশ নেবে না। প্রতিবাদ সভায় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সদস্যরা অংশ নেয়।