ম্যাজিষ্ট্রেট পরিচয়ে চাঁদাবাজির সময় গণধোলাইয়ের শিকার পুলিশ সোর্স

89

শাহাদাৎ হোসেন চৌধুরী শিপন: নারায়ণগঞ্জের বন্দরে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়ে চাঁদাবাজির সময় জনতার কাছে গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছেন পুলিশের সোর্স হিসেবে পরিচিত শামীম নামের এক যুবক। শামীমকে সহযোগিতা করা পুলিশের দুইজন সহকারী উপ পরিদর্শক (এএসআই) দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় বন্দর উপজেলার সাবদী এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদের পাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঈদ উপলক্ষে বন্দরের সাবদী এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে অস্থায়ীভাবে গড়ে ওঠা দোকানপাট থেকে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দিয়ে পুলিশের সোর্স শামীম প্রতিদিনই চাঁদা নিত। তাকে সহযোগিতা করতেন বন্দর থানা পুলিশের এএসআই আমিনুল ও আনোয়ার।

শনিবার বিকেলে তারা বিভিন্ন দোকান থেকে টাকা তুলতে গেলে স্থানীয় দোকানদারেরা শামীমের পরিচয় পত্র দেখতে চান। সে তার পরিচয় পত্র দেখাতে পারেনি। এতে এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে শামীমকে গণধোলাই দিয়ে আটকে রাখে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে এএসআই আমিনুল ও আনোয়ার দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। বন্দর থানা পুলিশ পরে শামীমকে উদ্ধার এবং আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

বন্দর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আজহারূল ইসলাম জানান, এলাকাবাসীর অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা ঘটনাস্থল থেকে শামীমকে আটক করেছি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় পুলিশের কোনো সদস্য জড়িত কি না তদন্ত করে দেখা হবে।