কারিগরি শিক্ষার প্রসার ঘটিয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার-রমেশ চন্দ্র সেন

28
জানে আলম শেখ: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন বলেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার কারিগরি শিক্ষার প্রসার ঘটিয়েছে। কারিগরি শিক্ষায় বিভিন্ন প্রশিক্ষণ নিয়ে স্বাবলম্বী হয়ে উঠছে মানুষ। কারিগরি শিক্ষা ও এ সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ দক্ষতা উন্নয়নে ভুমিকা রাখে, যা সামগ্রিক উন্নয়নের অবিচ্ছেদ্য অংশ। কারিগরি শিক্ষার প্রসার ও এর গুণগত মান উন্নয়নের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।
সোমবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও জেলা পরিষদের হলরুমে অসহায় দুস্থ বেকার মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন ও অসহায় দুস্থদের মাঝে টিউবওয়ের বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
এডিপি প্রকল্পের আওতায় জেলা পরিষদের তত্বাবধানে জেলার ৫৫জন অসহায় দুস্থ মহিলা সেলাই প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। স্বাবলম্বী হয়ে গড়ে উঠার জন্যই মহিলাদের মাঝে বিনামূল্যে সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়। এছাড়াও ১১ জন অসহায় মানুষের মাঝে বিনামূল্যে টিউবওয়েল বিতরণ করা হয়।
সাংসদ রমেশ চন্দ্র সেন বলেন, সরকার কারিগরি শিক্ষার প্রসার ঘটিয়ে মানুষকে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দিয়ে স্বাবলম্বী করে তুলছে। বিশেষ করে মহিলাদের স্বাবলম্বী করার জন্য বিভিন্ন রকম পদক্ষেপ গ্রহণ করছে সরকার। কারণ সরকার নারীর কর্মদক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে দেশ এগিয়ে নিয়ে যেতে চায়।
তিনি বলেন, আপনার যারা আজ সেলাই মেশিন পাচ্ছেন। এই মেশিন দিয়ে আপনারা আপনাদের অভাবকে জয় করতে পারবেন আপনাদের কর্মদক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে। এছাড়াও আশে পাশে আরও অনেক মহিলাকে প্রশিক্ষণ দিয়ে তাদের ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারবেন।
নারী শিক্ষার বিষয়ে সাংসদ রমেশ চন্দ্র সেন বলেন, আপনারা সবাই জানেনে বর্তমান সরকার নারীবান্ধব সরকার, শিক্ষা বান্ধব সরকার। নারী উন্নয়নের জন্য এ সরকার প্রতিনিয়ত কাজ করে চলেছে। সব নারীকেই সুশিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। বয়সের কথা না ভেবে শিক্ষা অর্জনে মনযোগী হতে হবে। কারণ শিক্ষা অর্জনের ক্ষেত্রে কোন বয়স হয়না। সব বয়সেই শিক্ষা অর্জন করবে মানুষ এটা স্বাভাবিক। মনে রাখতে হবে নারীরা শিক্ষিত হলে দেশ আরও উন্নয়ন করবে।
সবাইকে শিক্ষায় মনোযোগী এবং কর্মদক্ষতা দিয়ে বাংলাদেশের উন্নয়নে ধারা অব্যাহত রাখার জন্য আহবান জানান সাংসদ রমেশ চন্দ্র সেন।
জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুহা: সাদেক কুরাইশীর সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, জেলা প্রশাসক ড. কেএম কামরুজ্জামান সেলিম, পুলিশ সুপার মোহা: মনিরুজ্জামান, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মঞ্জুর রহমান, ঠাকুরগাঁও প্রেসক্লাবের সভাপতি মনসুর আলী প্রমুখ। অনুষ্ঠনে জেলা পরিষদের সকল সদস্য, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here