কুমিল্লার লাকসামে ছেলেধরা সন্দেহে ভিক্ষুককে গনধোলাই

60

আবির খান আশিক: কুমিল্লা জেলার লাকসাম থানায় ছেলেধরা সন্দেহে এক ভিক্ষুককে গণধোলাই দেওয়া হয়েছে। এতে ভিক্ষুকের পা ভেঙ্গে যায়। তাকে উদ্ধার করে লাকসাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায় পুলিশ। ঘটনাটি ঘটে লাকসাম পৌর শহরের পেয়ারাপুর এলাকায়। আহত ভিক্ষুক এর নাম রফিকুল ইসলাম। তার বাড়ি কুমিল্লা জেলার মনোহরগঞ্জ উপজেলার নাথেরপেটুয়া ইউনিয়ন বিনয়ঘর গ্রামের ইয়াছিন মিয়ার ছেলে। আহত ভিক্ষুকের পরিবার জানান, বেশ কয়েকদিন ধরে তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন।

স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, বিকেলের দিকে ঐ এলাকায় হাতে একটি ব্যাগ নিয়ে ভিক্ষা করছিলেন ভিক্ষুক রফিকুল। ভিক্ষা শেষে জেলেপাড়া সংলগ্নে দোকানের আশেপাশে ঘুড়াঘুড়ি করছিল রফিকুল। স্থানীয় ছেলেধরা মনে করে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এতে তিনি আবোল তাবোল বলতে থাকে। এতে স্থানীয় জনতা ক্ষিপ্ত হয়ে গণধোলাই দেয়। খবর পেয়ে লাকসাম থানার পুলিশ তাকে উদ্ধার করে লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করে দেয়।

লাকসাম থানার ওসি নিজাম উদ্দিন বলেন, তার বাড়িতে খোজঁখবর নিয়ে জানা যায় তিনি ভারসাম্যহীন ব্যাক্তি ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here