কিশোরগঞ্জের চিত্রশিল্পী হাবিবুর রহমান বর্ণালী’র দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী

216

কালজয়ী রিপোর্ট: কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার কটিয়াদী আদর্শ বিদ্যানিকেতনের সিনিয়র শিক্ষক, চিত্রশিল্পী, কটিয়াদী উপজেলায় আর্ট জগতের পথিকৃৎ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, বর্ণালী আর্ট এন্ড ডিজিটাল সাইন ও বর্ণালী মডেল শিশু নিকেতনের প্রতিষ্ঠাতা হাবিবুর রহমান বর্ণালী’র দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী (১৯ জুলাই শুক্রবার)। হাবিবুর রহমান বর্ণালী কটিয়াদী পাইলট বালক উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, কটিয়াদী কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারু ও কারুকলা ইনস্টিটিউট থেকে ফাইন আর্টসে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি শিক্ষা জীবন শেষে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীতে ডিজাইনার হিসাবে যোগদান করেন। সেখানে তিনি তিন বৎসর ডিজাইনার হিসাবে কর্মরত ছিলেন।

কটিয়াদীতে তাঁর নকশায় তৈরি হয়েছে অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও মসজিদ। এলাকার পিছিয়ে পরা লোকজনের জন্য তিনি সরকারি চাকরি ছেড়ে দিয়ে চলে আসেন গ্রামে পরে আত্মনিয়োগ করেন শিক্ষকতা পেশায়। তিনি ব্যক্তি জীবনে ছিলেন একাধারে সংস্কৃতি কর্মী ও উন্নয়ন কর্মী। তিনি শিক্ষকতার পাশাপাশি শুরু করেন ব্যবসা। তিনি কটিয়াদী পাইলট বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও সু-শাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) কটিয়াদী উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও নিরাপদ সড়ক চাই কটিয়াদী উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

২০১৭ সালের ১৯ জুলাই সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভাগলপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেনএ কিংবদন্তি। তিনি মৃত্যুকালে স্ত্রী, দুই ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন। হাবিবুর রহমান বর্ণালী’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তার পরিবার মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করেছেন। মহান আল্লাহ যেন তাঁকে জান্নাতবাসী করেন।