ঢাবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে আক্রমাণত্মক বক্তব্যের প্রতিবাদে খুবি শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

107
খুবি প্রতিনিধি: আজ ১৬ জুলাই সকাল সাড়ে ১০ টায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের হাদী চত্বরে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে সত্যানুসন্ধানী গবেষক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রফেসর আ ব ম ফারুকের গবেষণা ফলের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, মিথ্যাচার ও অসম্মানজনক বক্তব্যের প্রতিবাদে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
শিক্ষক  সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ সারওয়ার জাহানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. সমীর কুমার সাধু, প্রফেসর ড. সরদার শফিকুল ইসলাম, প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা, প্রফেসর ড. এ টি এম জহিরউদ্দিন প্রমুখ।
বক্তারা বলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োমেডিক্যাল রিসার্চ সেন্টারের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক আ ব ম ফারুকের নেতৃত্বে পরিচালিত বাজারে বিদ্যমান পাস্তুরাইজড দুধে অ্যান্টিবায়োটিকের উপস্থিতি নির্ণয় সংক্রান্ত গবেষণা কার্যক্রমকে ঘিরে বিভিন্ন ধরনের হুমকি-ধমকি প্রদান এবং অন্যায়ভাবে চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে।
এহেন পরিস্থিতির মুখেও অধ্যাপক ফারুক দ্বিতীয় দফা পরীক্ষায় দুধের নমুনায় অ্যান্টিবায়োটিকের উপস্থিতি পেয়েছেন। একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে তিনি জনগণের প্রতি দায়বদ্ধ। সেই দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে এই গবেষণার ফলাফল প্রকাশ করে তিনি নীতি-নৈতিকতাবিরোধী কোনো কাজ করেননি। তাঁর গবেষণার ফলাফল নিয়ে সন্দেহ থাকলে কর্তৃপক্ষ বিশেষজ্ঞদের নিয়ে আরও গবেষণা ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দুধের মান নিয়ে জনমনে সন্দেহের অবসান ঘটাতে পারতেন। তা না করে অধ্যাপক ফারুককে ব্যক্তিগত আক্রমণ করে জনপ্রতিনিধি, সরকারি আমলা ও বিভিন্ন কোম্পানির দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা যে আচরণ করছেন তা বিশ্ববিদ্যালয়ের জ্ঞানচর্চা ও গবেষণার পরিবেশের জন্য এক বিরাট হুমকি।
এই ধরনের আচরণ অব্যাহত থাকলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও গবেষকেরা গবেষণার প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলবেন। বক্তারা এ ধরনের বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়ে ঐসব ব্যক্তিদের বক্তব্য অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানান। মানববন্ধন সঞ্চালনা করেন সমিতির যুগ্ম সম্পাদক মোঃ এনামুল হক। মানববন্ধনে সমিতির সদস্য এবং  বিশ্ববিদ্যলয়ের বিভিন্ন ডিসিপ্লিনের শিক্ষকবৃন্দ অংশ নেন।