পল্লীবন্ধু এরশাদ আর নেই

60

আবির খান আশিক: সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান এইচ এম এর আর নেই (ইন্নানিল্লাহি ওয়ান্নিল্লাহি রাজিউন)। আজ (১৪ জুন) সকাল পৌনে ৮টার দিকে ঢাকা সম্মলিত হাসপাতালে (সিএমইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এরশাদের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন তার আত্মীয় ও জাতীয় পার্টির সভাপতিমন্ডলির সদস্য খালেদ আখতার। এছাড়া আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) থেকেও এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করা হয়। আইএসপিআর এর সহকারী পরিচালক রাশেদুল আলম খান জানাান, আজ সকাল ৭.৪৫ মিনিটের সময় এরশাদ মারা যান।

তার শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে গত ২৬ই জুন ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসাপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। জাতীয় পার্টির চেয়্যারম্যানের কার্যালয়ে শনিবারের সর্বশেষ ব্রিফিংয়ে এরশাদের ছোট ভাই ও দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের জানিয়েছিলেন, কিডনি ও লিভারসহ তার প্রধান অঙ্গগুলো কাজ করছে না।

এইচ এম এর ১৯৩০ সালে অবিভক্ত ভারতের কোচবিহার জেলায় জন্মগ্রহন করেন। পরে তার পরিবার রংপুরে চলে আসে। তিনি ১৯৫২ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগদান করেন। এর বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে বিভিন্ন পদে কর্মরত থেকে ১৯৭৮ সালে সেনাবাহিনীর প্রধান নিযুক্ত হন।

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান হত্যাকান্ডের পর আব্দুস সাত্তার নির্বাচিত হয়ে সরকার গঠন করেন। ১৯৮২ সালে তাকে উৎখাত করে এরশাদ রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করে। ১৯৮৩ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত এইচ এম এরশাদ বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ছিলেন।

এরপর তাকে ১৯৯০ সালে গ্রেফতার করা হয় এবং তাকে কারাবন্দি করে রাখা হয়। প্রায় ৬ বছর জেল খাটেন এরশাদ। ১৯৯৭ সালের ৯ জানুয়ারি তিনি জামিনে মুক্ত হন।

তিনি বর্তমান সংসদের বিরোধী দলের নেতা। একাদ্বশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৭টি আসন পেয়ে বিরোধীদলীয় নেতা নির্বাচিত হন। তিনি উপজেলা পরিষদ প্রতিষ্ঠা করেন। এজন্য তাকে পল্লীবন্ধু খেতাবে ভূষিত করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here