নবজাতককে কোলে নিয়ে বিয়ে হলো তরুণীর

366
নূরুল আলম আবির: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সদ্য জন্ম নেয়া নবজাতককে কোলে নিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে হয়েছে এক তরুণীকে। বর্তমান বরের সাথে এক বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক থাকার সময়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন তিনি। মাত্র ৬ দিন আগেই এ নবজাতকের জন্ম দেন সে তরুণী। অবশেষে আজ বুধবার দুপুরে ভিডিও কলের মাধ্যমে মালয়েশিয়া প্রবাসী সংশ্লিষ্ট যুবককে বিয়ে করেন তরুণী। নিজের অধিকারের সাথে নিজ সন্তানের পিতৃপরিচয় পেয়ে বেজায় খুশি সে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মমতাজ বেগম স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে এই বিয়ের আয়োজন করেন।
তরুণীর পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বছরখানেক আগে ওই যুবকের সঙ্গে তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। একপর্যায়ে তরুণী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে প্রেমিক যুবক তাঁকে অস্বীকার করতে শুরু করে। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার সালিস-বৈঠক হলেও কোনো সুরাহা হয়নি। এক মাস আগে ওই যুবক মালয়েশিয়া পাড়ি জমালে তরুণীর কপাল পুঁড়ল বলে অনেকেই বলে উঠল।
কনের পরিবার জানিয়েছে, ৬ দিন আগে কন্যাসন্তানের জন্ম দেন ওই তরুণী। তারপর তরুণীর বাবা কোনো উপায়ান্তর না দেখে মুঠোফোনে যুবককে বিয়ের কথা জানালে তাতে তিনি অস্বীকৃতি জানান। পরে স্থানীয় লোকজনের কাছে বিচারের আশায় টানা পাঁচ দিন ঘুরেও উপযুক্ত কোনো সমাধান করতে না পেরে তরুণীর পরিবার সংশ্লিষ্ট উপজেলার ইউএনও’র কাছে যান। সেখানে নবজাতকের পিতৃ পরিচয় পেতে বিচার দাবি করেন তারা। পরে ইউএনও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের (ইউপি) মাধ্যমে উভয় পরিবারকে নোটিশ করে বার্তা পাঠান।
ইউএনওর নোটিশের পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা অডিটোরিয়ামে এ বিয়ের ব্যবস্থা করা হয়। উভয় পরিবারের সম্মতিতে ১০ লাখ টাকা কাবিন আর নবজাতকের নামে ২ শতক জমিন লিখে দেয়ার চুক্তিতে শেষতক এ বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিয়ের শাড়ি, কাবিনের ফি ও বিভিন্ন আনুষঙ্গিক খরচপাতি ইউএনও নিজেই বহন করেন।
বিষয়টির সুষ্ঠু ও সামাজিকভাবে সুন্দর সমাধান হওয়ায় স্থানীয় লোকজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ওমর ফারুক ভূঁইয়া, সংশ্লিষ্ট ইউপির চেয়ারম্যান এবং ইউপি সদস্যসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ বিয়ের সময় উপস্থিত ছিলেন। এমন ব্যতিক্রমী বিয়ের খবরে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here