ঝিনাইদহের মেদেহী’র লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলেন যুবলীগ নেতা বিপ্লব

53

তরিকুল ইসলাম তারেক: ঝিনাইদহের আরাপপুরের মেহেদী হাসান এর লেখাপড়ার সকল দায়িত্ব নিলেন ঝিনাইদহ সদর থানা যুবলীগের সাবেক আহ্বাক নুরে আলম বিপ্লব। জানা যায়, আরাপপুর গ্রামে শরিখ শেখ হাটের রাস্তার পাশে ফুতপাতে হকারীর মালামাল বিক্রি করেন। সংসারে স্ত্রী, দুই মেয়ে ও এক ছেলে। কিন্তু তার অল্প উপার্জনে সংসার চলে না। এছাড়া স্ত্রীর অসুখও আছে। ওষুধপত্র কিনতে প্রতি মাসে টাকা লাগে। লোকের কাছ থেকে সুধের টাকা দিয়ে স্কুলে বেতন এবং পরীক্ষার ফী দিয়েছেন একমাত্র ছেলে ঝিনাইদহ ওয়াজির আলী স্কুল এন্ড কলেজের ৮ম শ্রেণীর মেধাবী ছাত্র মেহেদী হাসানের। কিন্তু এভাবে এর কত দিন। তাই তিনি ঠিক করেন ছেলে লেখা পড়া বন্ধ করে দেবেন। বিষয়টি জানাজানি হলে। স্থানীয় এক সাংবাদিক মোঃ তরিকুল ইসলাম তারেক ‘‘সংসারে বড্ড অভাব, আগামী মাস থেকে লেখাপড়া বন্ধ হবে মেহেদী’র’’ শিরোনামে একটি নিউজ করেন এবং ফেসবুকে পোষ্ট করেন। বিষয়টি নজরে পড়েন ঝিনাইদহ সদর থানা যুবলীগের সাবেক আহ্বাক নুরে আলম বিপ্লব এর। তিনি ছেলের বাবা ফরিফ শেখ কে তার অফিসে ডাকেন এবং নগত টাকাসহ স্কুলের বেতন, ফী যাতে মাফ করা যায় সে বিষয়ে উক্ত স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সাথে কথা বলেন। এ ব্যাপারে যুবলীগ নেতা নূরে আলম বিপ্লব জানান, আমার এলাকার রামচন্দ্রপুর স্কুল এন্ড কলেজসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে অর্ধ শতাধিক গরিব শিক্ষার্থীকে আমি বিনামুল্যে লেখাপড়ার ব্যবস্থা করেছি। আর একজন মেদেহী টাকার জন্য লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যাবে সেটা হতে দেওয়া যায় না, আজ থেকে আমি আমার ব্যাক্তিগতভাবে মেহেদীর লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলাম। মেহেদী আবারও স্কুলে যাবে, লেখাপড়া করবে এবং নেতার এমন উদারতা দেখে আবেগ অপ্লুত হয়ে কেঁদে ফেলেন মেহেদীর পিতা ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here