সাভারে গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যা, স্বামী পালাতক

120

তৌকির আহাম্মেদ: সাভারের আশুলিয়ায় পারিবারিক কলহের জের ধরে নুর বানু আক্তার সাথী নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে তার পাষন্ড স্বামী। এ ঘটনার পর থেকে স্বামী মোস্তফিজুর রহমান লিমন পালাতক রয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে আশুলিয়ার তাজপুর এলাকায় শামসুল হকের মালিকানাধীন ৩ তলা বাড়ির নীচ তলায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধূ রংপুর জেলার পীরগঞ্জ থানার পাবর্তীপুর গ্রামের বাসিন্ধা ও স্বামী মোস্তাফিজ একই থানার তুলারামপুর গ্রামের বাসিন্ধা। নিহত গৃহবধূ আশুলিয়ার নেক্সট জেনারেশন কারখানায় অপারেটর পদে কর্মরত ছিলেন। এই দম্পতির দিবা আক্তার সৃষ্টি নামে ৭ বছরের এক মেয়ে রয়েছে।

নিহতের দুলা ভাই জয়নাল আবেদিন জানান, মোস্তাফিজ ঢাকার শ্যামলীতে রিকশা গ্যারেজে কাজ করে। মাঝে মাঝে এখানে আসে। গত দুইদিন ধরে এই বাসায় এসেছে। পরে শুক্রবার দুপুরে হঠাৎ করে কাউকে কিছু না বলে সে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। পরে রুমে গিয়ে মেয়ে দিবা তার মাকে ডাকলেও কোন সাড়া শব্দ পায় না। পরে আমাদের খবর দেয়। এসময় সাথীর নিথর দেহ বিছানায় পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে জানাই।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার এস আই আজহারুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। তবে ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পেলে নিশ্চিত হওয়া যাবে। পাশাপাশি ঘাতক স্বামীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় নিহতের বোন বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন বলেও তিনি জানান।