ধুনটে সরকারি রাস্তা থেকে গাছ কর্তন

128

ইমদাদুল হক ইমরান: বগুড়ার ধুনট উপজেলায় কালেরপাড়া ইউনিয়নে সরকারি রাস্তা থেকে ৩০টি ইউক্যালিপটাস গাছ কর্তনের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার কান্তনগর-বিলচাপড়ি রাস্তার কৈগাড়ি বিল এলাকার রাস্তার পাশের জমি মালিকের এসব গাছ কেটেছে। বৃহস্পতিবার উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ঘটনাস্থল থেকে ১৮টি গাছের কাটা অংশ জব্দ করেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের কান্তনগর-বিলচাপড়ি সড়কটি স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের অর্থায়নে পাকা করা হয়েছে। সেই সড়কের দুই পাশে প্রায় ৮ বছর আগে জমির মালিকেরা নিজ উদ্যোগে ইউক্যালিপটাস গাছ রোপন করে। বর্তমানে গাছগুলো মূল্যবান হয়ে উঠেছে।

এ অবস্থায় স্থানীয় ঈশ্বরঘাট গ্রামের আজাহার আলী, রফিক উদ্দিন ও আতাহার আলী ৩দিন আগে রাস্তা থেকে অবৈধভাবে ৩০টি ইউক্যালিপটাস গাছ কর্তন করে। এরমধ্যে প্রায় ১২টি গাছ স্থানীয় এক ব্যবসায়ীর নিকট বিক্রি করেছে। এছাড়া বৃহস্পতিবার অবশিষ্ট ১৮টি গাছের কাটা অংশ নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় সংবাদ পেয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) কাটা গাছগুলো জব্দ করে কালেরপাড়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য সরোয়ার হোসেনের জিম্মায় রেখে দিয়েছে।

উপজেলার ঈশ্বরঘাট গ্রামের আজাহার আলী, রফিক উদ্দিন ও আতাহার আলী জানান, তাদের নিজ দখলীয় জমির পাশে সরকারি সড়ক ঘেসে গাছ গুলো রোপন করেছিল। তাই নিজেদের দাবী করে তারা গাছ গুলো কেটেছে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) ধুনট উপজেলা প্রকৌশলী জহুরুল ইসলাম বলেন, সরকারি রাস্তায় গাছ রোপন করে কেউ মালিকানা দাবী করতে পারেন না। সরকারি রাস্তায় গাছের মালিক সরকার। তাই সেই রাস্তার গাছ কাটা দন্ডনীয় অপরাধ। এ ঘটনার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেওযা হবে।

উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) জিনাত রেহানা জানান, সরকারি রাস্তা থেকে অবৈধভাবে গাছ কাটার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ১৮টি গাছের কাটা অংশ জব্দ করা হয়েছে। পরবর্তীতে এই গাছ গুলো নিলাম ডাকের মাধ্যমে বিক্রি করে সরকারি কোষাগারে টাকা জমা দেওয়া হবে। গাছের নিলাম ডাকের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।