সরাইলে মহাসড়কে ডাকাতি

122
মোঃ তাসলিম উদ্দিন: ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে সরাইল উপজেলার ইসলামাবাদ এলাকায় সোমবার (১জুন) দিবাগত রাত অনুমান সোয়া আট’টার দিকে ডাকাতির ঘটনা ঘটে।এসময় ডাকাতদল জেনারেল ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানির ‘এরিয়া ম্যানেজার’ বিশ্বনাথ সরকারের কাছ থেকে নগদ টাকা, তার বাজাজ ডিসকাভার মোটরসাইকেল (যার নম্বর, ঢাকা মেট্রো হ ৪৯-৪৮৮৭), একটি ট্যাব, এনডয়েড মোবাইল ফোন সেট ছিনিয়ে নেয়।ডাকাতদলের কবলে পড়া ব্যক্তি সাংবাদিকদের জানান, সন্ধ্যা রাতে মোটর সাইকেলযোগে মহাসড়কের ইসলামাবাদ এলাকায় সেই স্থানটিতে পৌঁছার সঙ্গে সঙ্গে সশস্ত্র ডাকাতরা তার গতিরোধ করে মোটরসাইকেল ও নগদ অর্থ সহ মালামাল লুটে নেয়।এ ঘটনায় বিশ্বনাথ সরকার সোমবার রাত সাড়ে নয়’টায় সরাইল থানায় উপস্থিত হয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
এদিকে ব্যস্ততম মহাসড়কে এই ডাকাতির ঘটনা চলাকালে, ঘটনাস্থলের কাছাকাছি পূর্বপাশেই মহাসড়কে ইসলামাবাদ এলাকায় সেতুর ওপর গাড়ি নিয়ে টহল পুলিশ অবস্থান করছিল বলে ভূক্তভোগী ও প্রত্যক্ষদর্শী লোকজন জানান। ডাকাতির সময়ে সুর-চিৎকার হলেও টহল পুলিশের সদস্যরা এগিয়ে আসেননি। সরাইল থানা সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে মহাসড়কের সেই এলাকায় টহলের দায়িত্বপালনে আছেন এস আই খলিলুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের সদস্যরা। মহাসড়কের সেই স্থানটি ভৌগলিক কারণে ডাকাত প্রবন এলাকা হিসেবে পরিচিত হওয়ায় টহল পুলিশ রাত ব্যাপী সেখানেই অবস্থান করার কথা।একটি সূত্র জানায়, সোমবার রাতে ঘটনার সময়ে সেই এলাকায় টহল পুলিশের সদস্যরা অবস্থান করলেও এস আই খলিল ডিউটিতে উপস্থিত ছিলেন না। ডাকাতির খবর পেয়ে তাড়াহুড়ো ঘটনাস্থলে পৌঁছান। অভিযোগ আছে, রাতে সড়কে নিরাপত্তায় টহল ডিউটি থাকলেও সরাইল থানার বেশিরভাগ পুলিশ অফিসার অন্য ধান্দায় ব্যস্ত থাকেন, তাদের পছন্দের কিছু সোর্স নামধারী যুবক নিয়ে।এ ব্যাপারে সোমবার রাতে মহাসড়কের সেই এলাকায় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা টহল দলের ইনচার্জ এস আই খলিল এ প্রতিবেদককে বলেন, এই ডাকাতি সংঘটিত হওয়ার সময়ে আমি টহল পুলিশ সদস্যদের নিয়ে মহাসড়কের বাড়িউড়া এলাকায় অবস্থান করছিলাম। অযথা আমার ওপর মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে। তাছাড়া মহাসড়কে ডাকাতি রোধে শুধুই থানাপুলিশের একার দায়িত্ব নয়, হাইওয়ে পুলিশেরও দায়িত্ব রয়েছে। তিনি বলেন, ডাকাতি হওয়া মোটরসাইকেল ও মালামাল উদ্ধার সহ অপরাধীদের গ্রেফতারে পুলিশ বিশেষ তৎপরতা চালিয়েছে।এই বিষয়ে জানতে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে সরাইল থানার ওসি মফিজ উদ্দিন ভূইঁয়া এই প্রতিবেদককে বলেন, আমি অসুস্থতায় ছুটিতে আছি। তবে ডাকাতির ঘটনার খবর পেয়ে সকলের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত আছে। ঘটনাস্থল, থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় আইনগত সকল ব্যবস্থাই নেওয়া হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here