বোয়ালমারীতে চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন

99

বিপ্লব আহমেদ: ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ঘোষপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এস এম ফারুক হোসেন প্রতিবন্ধী ও বয়স্ক ভাতার টাকা আত্মসাৎ নিয়ে বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের জের ধরে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। বৃহস্পতিবার (২০.৬.১৯) ঘোষপুর ইউনিয়ন পরিষদের হলরুমে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে ইউপি চেয়ারম্যান তার লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন গত ১৮ ও ১৯ জুন আমাকে জড়িয়ে ভাতা নিয়ে যে সংবাদ ছাপানো হয়েছে তা সম্পূর্ন ভিত্তিহীন ও বানোয়াট। কারও কাছ থেকে টাকা নেয়ার অভিযোগ মিথ্যা। কতিপয় সাংবাদিক আমার সাথে কথা না বলে আমাকে জড়িয়ে সংবাদটি ছাপিয়েছে। আমি এর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করছি। আমার জানা মতে এই সংবাদটি রাজনৈতিক প্রতিহিংসা ছাড়া আর কিছুই নয়। আমার পরিষদের যে সকল সদস্যর বিরুদ্ধে অভিযোগ এসেছে তদন্ত করে এর সত্যতা পেলে ব্যবস্থা নেব। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত অভিযুক্ত ইউপি সদস্য সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন ভাতা দেয়ার নামে কারও কাছ থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ মিথ্যা। এ ছাড়া আমাদের চেয়ারম্যানকে জড়িয়ে যে সংবাদ ছাপা হয়েছে তা ভিত্তিহীন। অপর অভিযুক্ত ইউপি সদস্য অপু সরকার বলেন, ভাতাভোগীদের কাছ থেকে একাউন্ট খোলা খরচ বাবদ যে টাকা নেয়ার অভিযোগ উঠেছে এর থেকে নিজে বাঁচতে চেয়ারম্যানের নাম বলেছিলাম। তিনি (চেয়ারম্যান) কখনও এ সব টাকা পয়সা নেন না। সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও শতাধিক ভাতা ভোগী উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য ওই ইউনিয়নের ঘোষপুর গ্রামের ফরিদা বেগম, লংকারচর গ্রামের দিলীপ গোলদার ও গোহাইল বাড়ি গ্রামের শংকরী বিশ্বাস ৪ নম্বর ওয়ার্ড ইউপি সদস্য কামরুল, ৭ নম্বর ওয়ার্ড ইউপি সদস্য ইউনুচ ও সংরক্ষিত ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য অপু সরকারের বিরুদ্ধে ভাতার টাকা আত্মসাৎ ও ভাতা দেয়ার নামে টাকা নেওয়ার অভিযোগে গত ১৮ ও ১৯জুন বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হয়।