শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ফারুকসহ ১২জন বহিষ্কার

88

বান্দরবান প্রতিনিধি: বান্দরবানে সংগঠনের শৃঙ্খলা ও নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে সংগঠনের স্বার্থ হানিকর কর্মকাণ্ডে সক্রিয় ভাবে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে বান্দরবান স্বেচ্ছাসেবক লীগের পৌর শাখার সদস্য সচিব ফারুক আহমেদ ফাহিমসহ ১২জন নেতা কর্মী‌কে কে। মঙ্গলবার (১৮ জুন) বান্দরবান জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সাদেক হোসেন চৌধুরী স্বাক্ষরিত অফিসিয়াল প্যাডে বহিষ্কারাদেশ টি প্রকাশ করা হয়।

বহিষ্কারাদেশে জানা যায়, গত (৭ মে) বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের জরুরি সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ বান্দরবান জেলা শাখার অধীনস্থ পৌর শাখার সদস্য সচিব ফারুক আহমেদ ফাহিম, মোহাম্মদ আব্দুর রশিদ, মোঃ সোহাগ রিমন মুন্না ভান্ডারী মোঃ সোহেল মোহাম্মদ আলী হেলাল বেলাল ফিরোজ রাব্বির বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ স্বেচ্ছাসেবক লীগ এর পর থেকে স্বার্থ হানিকর কর্মকান্ডে লিপ্ত থাকার অভিযোগ উত্থাপিত হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগ এর সবাই এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকার বিষয়টিও আলোচিত হয় এ বিষয়ে বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের সিদ্ধান্তের প্রতি সর্বোচ্চ সম্মান প্রদর্শন করে তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযুক্তরা যে যে পদে বহাল থাকুক না কেন সংশ্লিষ্ট সকলকে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ বান্দরবান পৌর শাখার পথ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

এ বিষ‌য়ে জানতে চাইলে ফারুক আহমেদ ফাহিম বলেন, নীলাচলের ঘটনায় আমি জড়িত ছিলাম না আমার উপরে দোষ চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগ ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের পক্ষ থেকে আমাকে পার্টি অফিসে ডাকা হয়নি এবং আমি দোষী কিনা আমার কাছে কোন বক্তব্য নেয়নি। তারা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মনগড়া ভাবে আমাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করেছেন।