চৌদ্দগ্রামে সবজির বাজার দর 

41
নূরুল আলম আবির: কুমিল্লা-চৌদ্দগ্রামের কাদৈর বাজারে পবিত্র রমজানে সবকিছুর দাম বাড়লেও স্থিতিশীল ছিল সবজির বাজার। ঈদের পরও সবজির দাম তেমন বাড়েনি। রোজা ও ঈদের সময় মূলত সবজির চাহিদা কম থাকায় মূল্য স্থিতিশীল ছিল বলে বলছেন ব্যবসায়ীরা। আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টায় উপজেলার কাদৈর বাজার পরিদর্শনে গিয়ে কালজয়ীর এ প্রতিনিধি কথা বলেছেন সবজি ব্যবসায়ীদের সাথে। এ সময় পুরো সবজি বাজার প্রায় ক্রেতা শূন্য। বিক্রি না থাকার কারণে অলস সময় কাটাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। তাদের মধ্যে একজন সবজি ব্যবসায়ী মোঃ মোতালেব। কথা হলো তার সাথে। মোঃ মোতালেবের কাছে বিভিন্ন সবজির আজকের বাজার দর জিজ্ঞেস করলাম। তিনি সব বললেন অকপটে। এ সময় তিনি বলেন, “রমজানে কাঁচা সবজির চাহিদা কম ছিল। ঈদের পর চাহিদা ও বিক্রি মোটামুটি বেড়েছে। রমজান মাসে সবজি কিনতে হয় বেশি দামে, বিক্রি করতে হয় কম দামে। বিক্রি কম থাকার কারণে অনেক সবজি পঁচে যায়। এতে আমাদের লস (লোকসান) হয়। রমজানে আমাদের লাভের পরিবর্তে লসই (লোকসান) বেশি হইছে।” চৌদ্দগ্রামের কাদৈর বাজারে আজকের সবজির বাজার দর তুলে ধরা হলোঃ আজকের বাজার দরে প্রতি কেজি মুলার দাম ৩০ টাকা, করলা ৫০ টাকা, বেগুন ২০ টাকা, ঢেঁড়স ১০ টাকা, আলু ২০ টাকা, কাঁকরল ৩০ টাকা। কাঁচা মরিচ ৭০ টাকা হলেও রমজানে প্রতি কেজি কাঁচা মরিচ ৯০-১০০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। ধনিয়া পাতার কেজি ১৪০, রমজানে ছিল ২০০ টাকা। শসা প্রজি কেজি ৩০ টাকা এবং পটল প্রতি কেজি ৩৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। চৌদ্দগ্রামের সকল বাজারে সবজির দর প্রায় একই। প্রতি কেজিতে ৩-৫ টাকা কমবেশী হতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here