ঈদে ধর্মতীথে উপচে পড়েছে সব বয়সী মানুষ! 

135
মোঃ তাসলিম উদ্দিন: দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনা ও ইবাদত বন্দেগির পর বিশ্ব মুসলিম উম্মাহ রোজা ভঙ্গ করে আল্লাহর নিয়ামতের শুকরিয়া স্বরূপ যে উৎসব পালন করে তার নাম ‘ঈদুল ফিতরের উৎসব। রমজানের ওই রোজা শেষে আবার এসেছে ঈদ। ঈদ উদযাপনে প্রস্তুতির কোনো ঘাটতি নেই দেশবাসীর। সবাই নিজেদের সাধ্যমতো চেষ্টা করেছেন ঈদুল ফিতর উদযাপনের আয়োজন করতে।ঈদের উৎসব পালনে প্রবাসী ও ছুটিতে  সময়ে অধিকাংশ মানুষ গ্রামে । সারাদিন বৃষ্টির কারণে বের হতে না পেরে বিকেলের দিকে কমতে শুরু করলেই মানুষ বেড়াতে বের হয়েছেন। আর এতে কোলাহলে ভরে উঠেছে সরাইল উপজেলার বিনোদন কেন্দ্র হিসাবে পরিচিত ধর্মতীর্থের মিনি কক্সবাজার নামে। উপজেলার কালিকচ্ছ  ধর্মতীর্থের মিনি কক্সবাজার  এখন অন্যতম জনপ্রিয় জায়গা। বেলা গড়িয়ে বিকেল হতেই পুরো  সরাইল – নাচিরনগর মহাসড়কের এলাকাজুড়ে সমাগম ঘটেছে দর্শনার্থীদের। কেউ এসেছেন বন্ধু বা বান্ধবীকে নিয়ে আবার কেউ এসেছেন স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে। বুধবার (৫ জুন) ঈদের দিন বিকেলে উপজেলার কালিকচ্ছ ধর্মতীর্থের  এলাকা ঘুরে এমন দৃশ্যই চোখে পড়েছে। স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে অনেকে ঘুরতে এসেছেন  বিজয় নগরের মোখলেছ,  এ প্রতিবেদক বলেন, সারা বছরই অফিসসহ পারিবারিক নানা কাজে ব্যস্ত থাকতে হয়। ঈদের ছুটিতে গ্রামে, তাই সবাইকে নিয়ে বেরিয়ে চলে এলাম ধর্মতীর্থের মিনি কক্স বাজারে। এখান কার প্রকুতিদৃশ্য পরিবেশও ভাল। সড়কের রাস্তার পাশে বসে আছেন শিক্ষক ইউছুফ । বিকেলে ঘুরতে এসেছেন ধর্মতীর্থে। এখানে চটপটি, ফুসকা খাবেন। আড্ডা দিয়ে বাড়িতে ফিরে যাবেন। সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম( সুমন) বলেন, অনেক বড় এলাকা হওয়াতে মানুষের জটলাও বাধে না। তাই সবাই এখানেই বিনোদন খোঁজে।