রাত পেরোলেই পবিত্র ঈদ উল ফিতর: জমে জমে উঠেছে ঈদ বাজার 

132

সঞ্জয় সাহা: ঈদ মানেই খুশি। আর সেই ঈদে নতুন পোশাক হবে না তা কী হয়? তাই তো ঈদের নতুন পোশাক কিনতে গাইবান্ধা  অভিজাত শপিংমল সহ বিভিন্ন বিপণী বিতানগুলিতে ভিড় করছেন বিভিন্ন বয়সের ক্রেতারা।

রাত পেরোলেই ঈদ।   ঈদ ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে  কেনাকাটাও জমে উঠছে গাইবান্ধার সুপার মার্কেট, পৌর সুপার মার্কেট, ইসলাম প্লাজা, তরফদার ম্যানশন সহ শহরের ছোট বড় বিভিন্ন বিপনী বিতানগুলিতে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভীড় ও অানাগোনা।  বিভিন্ন ডিজাইনের ও নিত্যনতুন পণ্যের পসরা সাজিয়েছেন বিক্রেতারাও। ক্রেতারা তাদের পছন্দের পোশাক ও সাধ্যের মধ্যে জিনিস  কিনতে ঘুরে বেরোচ্ছে এ দোকান থেকে সে দোকান। অন্যদিকে বিভিন্ন বয়সের মহিলারা তাদের পোশাকের সাথে ম্যাচিং করে পড়ার জন্য ভীড় করছে কসমেটিক্স এর দোকানেও।

(২ জুন)  রবিবার গাইবান্ধার অভিজাত শপিং কমপ্লেক্স ইসলাম প্লাজায় গিয়ে অভিজাত বস্ত্র বিতান, মুরাদ ফ্যাশন হাউজ, শীতল রেডিমেড পোশাকের দোকান সহ বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে এমন চিত্রই দেখা গেছে।  তবে বাধ সেজেছিল বৃষ্টি।  রোববার থেকে সোমবার অনবরত বৃষ্টির কারনে একদিকে যেমন দোকানগুলিতে ক্রেতা শূন্য হয়ে যায়। অন্যদিকে শপিং করতে অাসা ক্রেতারাদের কে পড়তে হয় বীড়ম্বনায়।

‘ছোট-বড় সবাই ঈদের সময় নতুন পোশাকের জন্য বাবা-মায়ের কাছে বায়না ধরে। নতুন পোশাক না দিলে যেন রক্ষা নেই।

শহরের ইসলাম প্লাজার অভিজাত বস্ত্র বিতানের প্রপাইটর জানান, এবার ঈদে সুতির শাড়ি, সিল্ক, টাঙ্গাইল শাড়ি বেশি চলছে।