চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা জুড়ে বয়েছে ঝড়,আমের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি

87

মেহেদী হাসান শিয়াম: দেশের সকল বিভাগে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনার আভাস ছিলো শনিবার এবং পরবর্তী ৭২ ঘন্টা। ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছিলো, ঢাকা, রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এরই প্রেক্ষিতে ২ জুন রবিবার ভোর ৬টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা, শিবগঞ্জ উপজেলা, নাচোল উপজেলা, ভোলাহাট ও গোমস্তাপুর উপজেলার উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হয়। শিবগঞ্জ উপজেলাতে ঝড়ো হাওয়ার তীব্রতা ছিলো অনেক বেশি বলে জানা গেছে। এদিন ভোর রাত থেকেই আকাশ কালো হয়ে মেঘে ঢেকে যায়। তারপর শুরু হয় তীব্র ঝড়ো হাওয়া সাথে বৃষ্টি। ভোর ৬টার দিকে শুরু হয় তীব্র ঝড় আর বৃষ্টি। প্রায় ১৫ মিনিটের ঝড়ে আম গাছসহ অনেক গাছ উপড়ে গেছে। বাতাসের তোড়ে ভেঙে গেছে বহু গাছের ডাল। কিছু কিছু বাড়ির টিন উড়ে গেছে। ভাঙা গাছের ডাল পড়ে অনেক বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। প্রতিটি আম বাগানে বৃষ্টির মত ঝড়ে আম পড়েছে। অনেক আম ব্যবসায়ী আজকের ঝড়ে মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হলেন। বাগান থেকে বস্তা এবং ডালি ভর্তি করে মানুষকে আম কুড়াতে দেখা গেছে।

অপরদিকে নাচোলে সকাল থেকে ঝড় আর বৃষ্টি হয়। তবে ঝড়ের গতি তুলনামূলক কম থাকায় এখানে তেমন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। তবে আম বাগানে ঝড়ে প্রচুর আম ঝরে পড়েছে। অন্যদিকে গোমস্তাপুর, ভোলাহাট ও চাঁপাই সদরেও টানা ১৫ থেকে ২০ মিনিট ঝড়ো বাতাস আর বৃষ্টি হয়েছে। ৫ উপজেলার ভেতর ক্ষয়ক্ষতির পরিমানটা শিবগঞ্জ উপজেলায় বেশি।

রাতের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল হয়ে পশ্চিমবঙ্গ থেকে উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। যার কারণে আকাশ মেঘলা ও ঝড়ো হাওয়ার সাথে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here