ফেসবুক ও অনলাইন পোর্টালে আমার নামে ষড়যন্ত্র হচ্ছে-চেয়ারম্যান ক্যশৈ হ্লা

103

বান্দরবান প্রতিনিধি: পাহাড়ে সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন হত্যাকান্ড নিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাাম ভিত্তিক বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আমাকে নিয়ে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। পার্বত্য বার্তা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পাহাড়ের সন্ত্রাসী গ্রুপের ইন্দনে বিভিন্ন সময় এই ভিত্তিহীন মিথ্যে তথ্য দিয়ে সংবাদ পরিবেশন করে আসছে। অস্ত্র দিয়ে নেতৃত্ব সৃষ্টি করা যায়না। আমরা এই কর্মকান্ডকে সমর্থন করিনা। বলে মন্তব্য করেন বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য শৈহ্লা মারমা।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সাড়ে ১১ টায় বান্দরবান জেলা পরিষদের হলরুমে সাম্প্রতিক সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও পার্বত্য অঞ্চল ভিত্তিক স্থানীয় অনলাইন নিউজ পোটালে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরোদ্ধে মিথ্যাচারের প্রতিবাদে এই সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়।

তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও এইসব ভুয়া ফেসবুক এর মাধ্যমে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করছে জনসংহতি সমিতি। আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের হত্যা করলে শান্তি চুক্তি কি বাস্ত বায়ন হবে?। জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) আওয়াামী লীগের নেতাদের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য কৌশলগত ভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও অনলাইন পত্রিককে ব্যবহার করছে।

সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে ক্য শৈহ্লা মারমা আরও বলেন, বান্দরবানে যাতে আগামীতে সংঘাতের পরিস্থিতি তৈরী না হয় আমি ব্যক্তিগতভাবে অনেক চেষ্টা করে যাচ্ছি। জেএসএস কে বারবার বলা হচ্ছে চাঁদাবাজি অপহরণ ও খুন খারাপি বন্ধ করার জন্য। আমি ব্যক্তিগতভাবে সন্ত্রাসীদের পছন্দ করি না এবং সন্ত্রাসী লালন-পালন তো দূরের কথা। চথোয়াই মং মারমাকে হত্যার পর একটি পক্ষ ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের জন্য কাজ করছে সন্ত্রাসী মগ বাহিনী হোক সংস্কারপন্থী হোক যেই হউক পুলিশ প্রশাসনকে সত্যি ঘটনা উৎঘাটন করতে সবার সহযোগিতা করা প্রয়োজন। আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা হত্যার পরও নেতাকর্মীরা এখন শান্ত রয়েছে। কারণ আমরা সমঝোতার মাধ্যমে শান্তি চাই। কিন্তু একটি স্বার্থনেষী মহল আওয়ামী লীগকে উত্তেজিত করে পরিস্থিতি ঘোলাটে করার পায়তারা করছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন পাহাড়ে অশান্তি ও সম্প্রীতি যেন নষ্ট না হয় মগ বাহিনী হোক যেই হোক তাদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার জন্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বান্দরবান প্রেস ক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, সিনিয়র সাংবাদিক মনিরুল ইসলাম মনু, সাবেক প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও এটিএন বাংলা এটিএন নিউজের জেলা প্রতিনিধি মিনারুল হকসহ বান্দরবনে কর্মরত বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here