৫ম শ্রেনির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে বৃদ্ধ গ্রেফতার

95

হিমাংশু দেব বর্মণ: মাগুরার শালিখায় ধর্ষণের অভিযোগে আঃ মান্নান মোল্যা (৬০)কে থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে। ধর্ষক মান্নান উপজেলার হাজরাহাটি গ্রামের বাসিন্দা। ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে শালিখা থানায় নারী নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন। মামলার বিবরণে জানা যায়, গত ৫/৬ মাস আগে সন্ধ্যা ৭/৮টার দিকে ওই শিশু ছাত্রী (১৩) বাড়ির পূর্ব পাশে টয়লেটে গেলে প্রতিবেশী মান্নান মোল্যা জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ কথা কাউকে না জানানোর জন্য ভয় ভীতি দেখিয়ে বলে পরবর্তীতে ডাক দিলেই তার কাছে আসতে হবে। না এলে তাকে মেরে ফেলা হবে। ভয়ে ওই ছাত্রী কাউকে কিছু বলে না।

সম্প্রতি মামলার বাদী ওই ছাত্রীর মা পেট উঁচু হয়ে যাচ্ছে দেখে টিউমার সন্দেহে শালিখা হাসপাতালের ডাক্তার উজ্জলকে দেখান। ডাক্তারের পরামর্শে গত ৭ মে আল্ট্রাসনোগ্রাফি করলে রিপোর্টে সাড়ে ৫ মাস গর্ভবতী বলে জানতে পারেন। মামলার বাদী ওই শিশুর মা তাকে প্রশ্ন করলে জোর পূর্বক প্রতিবেশী মান্নান মোল্যা এ কাজটি করেছে বলে জানায়। এ বিষয়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের মাধ্যমে ধর্ষক মান্নানকে ডাকলে সে হাজির না হয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে সুযোগ খুঁজতে থাকে। এরই মাঝে ধর্ষিতার মা তার অন্য এক মেয়ের বাড়িতে যান। সেদিন ছিল মে মাসের ১০ তারিখ। এই সুযোগে তাকে ভাল ডাক্তার দেখানোর কথা বলে মাগুরার একটি ক্লিনিকে নিয়ে গিয়ে পেটের বাচ্চাটি নষ্ট করে দেয় লম্পট মান্নানের মেজ ছেলে বাবর। তবে বাচ্চাটি নষ্ট করার পর বাবর তাকে বাড়িতে পৌঁছে না দিয়ে মাগুরা ভায়না মোড়ে বসিয়ে রেখে পালিয়ে যায়। এমতাবস্থায় ইউপি সদস্যসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিদের পরামর্শে থানায় মামলা করা হয়। এই ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই বিএম রফিক জানান, মামলা নেয়ার পরে লম্পট মান্নানকে আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় মাগুরা সদর থানার প্রত্যন্ত এক গ্রাম থেকে গ্রেফতার করে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামী ধর্ষণের কথা স্বীকার করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here