লিচুর এবার বাম্পার ফলন 

194
মোঃ তাসলিম উদ্দিন: কসবা- আখাউড়া ঘুরে বাগানে বাগানে তোকাই তোকাই রংঙে রংঙে সবুজের মাঝে লাল হয়ে গাছে দেখতে যেমন নজর কারে তা খেতেও অনেক স্বাদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা-আখাউড়া এবং বিজয়নগর উপজেলার পাহাড়ি জমিতে বোম্বে,পাটনাইয়া এবং চায়না থ্রি জাতের লিচুর বাগান রয়েছে। মৌসুমের শুরুতে কিছুটা প্রতিকূল আবহাওয়া থাকলেও ফলন ভালো হওয়ায় খুশি বাগান মালিক ও পাইকাররা। কৃষি বিভাগ বলছে, লিচুর উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কার্যকরী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।মৌসুমের শুরুতে এ বছর চৈত্র মাসের খরার কারণে লিচুর মুকুল কিছুটা ঝরে যায়। তবে অল্পদিনের মধ্যে মৌসুমি বৃষ্টি শুরু হওয়ায় লিচু গাছের গুটি বড় হয় দ্রুত। এখন সীমান্তবর্তী পাহাড়ি অঞ্চল আখাউড়া উপজেলার আজমপুর, রাজাপুর ও মনিয়ন্দ এবং বিজয়নগর উপজেলার পাহাড়পুর, বিষ্ণুপুর, মুকন্দপুর এলাকায় গাছে লাল রঙের রসালো লিচু আর লিচু। প্রত্যাশা অনুযায়ী ফলন ভালো হওয়ায় খুশি বাগান মালিকরা। এদিকে পাটনাইয়া জাতের লিচু ইতোমধ্যে বাগান থেকে পাইকারদের কাছে বিক্রি শুরু হয়েছে। বাগান থেকে এসব লিচু কয়েকদফা হাতবদল হয়ে রাজধানীসহ বিভিন্ন স্থানে চলে যাচ্ছে। মৌসুমের শুরুতে ভালো দাম পেয়ে খুশি পাইকাররা।জানাযায় ফলন ভালো হওয়ায় লিচুর উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে।কৃষি অফিস সুত্রে জানাযায় এবার জেলার ৪৫০ হেক্টর জমির বাগানে সাড়ে ৬শ মেট্রিক টন লিচু উৎপাদন হবে তারা প্রাথমিক ভাবে দারণা করেছেন । যার বাজার মূল্য প্রায় পনের কোটি টাকা।