সৌদিতে স্পন্সর ছাড়াই ‘গ্রিন কার্ড’ পাবেন বাংলাদেশিরা!

130
মোঃওমর ফারুক: কোনো স্পন্সর নেই? তবুও চিন্তার কোন কারণ নেই! স্পন্সর ছাড়াই সৌদি আরবে পেয়ে যেতে পারেন আবাসন বা রেসিডেন্সি বিষয়ক নতুন ‘গ্রিন কার্ড’। বাংলাদেশিসহ বিদেশিরা পাবেন এই সুবিধা।বুধবার (৮ মে) সৌদি আরবের শুরা কাউন্সিল এমন একটি পরিকল্পনা অনুমোদন দিয়েছে। এর নাম দেয়া হয়েছে ‘প্রিভিলেজড আকামা’ সিস্টেম। শুরা কাউন্সিল এই খসড়া চূড়ান্ত করেছে। এর উদ্দেশ্য মূলত বিদেশি উদ্যোক্তা ও বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করা। অনলাইন আরব নিউজ সূত্রে জানা যায়, এ পরিকল্পনার অধীনে বিদেশি দক্ষ অভিবাসীরা এবং পুঁজির মালিকরা সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।বিদ্যমান আকামা ব্যবস্থায় আবাসিক অনুমোদন বা রেসিডেন্সি পারমিটের জন্য প্রয়োজন হতো একজন সৌদি স্পন্সর অথবা নিয়োগকর্তা। কিন্তু নতুন ব্যবস্থায় তা আর দরকার হবে না। এ ক্ষেত্রে এমন উদ্যোক্তা অথবা পুঁজির মালিক যেসব সুবিধা পাবেন তার মধ্যে তিনি শ্রমিক নিয়োগে সক্ষম হবেন। সম্পদের ও পরিবহনের মালিক হতে পারবেন। বেসরকারি খাতে, বাণিজ্যিক ও শিল্পখাতে কর্মসংস্থান হবে। সৌদি আরবের ভিতরে মুক্তভাবে চলাচল ও সৌদি আরব ত্যাগ করতে পারবেন। তবে এই সিস্টেমে গ্যারান্টি হিসেবে সুনির্দিষ্ট ফি থাকবে দুই ক্যাটেগরিতে। একটি হলো সম্প্রসারিত আকামা ও অস্থায়ী আকামা। এ ক্ষেত্রে বৈধ অভিবাসীর একটি ক্রেডিট কার্ড, সুস্বাস্থ্য বিষয়ক রিপোর্ট ও বৈধ পাসপোর্ট থাকতে হবে। কোনো ফৌজদারি অপরাধের রেকর্ড থাকতে পারবে না। গত মাসে শ্রম মন্ত্রণালয় ও সমাজ উন্নয়ন বিষয়ক বিভাগ ঘোষণা করে, তারা গোল্ড কার্ড ইস্যুটিকে সম্প্রসারিত করে আবাসিক প্রোগ্রামের আওতায় নিয়ে আসবে। এ জন্য কনসালট্যান্টস ও এজেন্সিগুলোকে এক্ষেত্রে সুবিধাভোগীর প্রণোদনার সম্ভাব্য বিষয়গুলোকে বিশ্লেষণ করার আহ্বান জানানো হয়।গোল্ড কার্ড কর্মসূচি হলো ‘কোয়ালিটি অব লাইফ প্রোগ্রাম ২০২০’-এর অংশ। কাউন্সিল অব ইকোনমিক অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অ্যাফেয়ার্স এটি চালু করে ২০১৮ সালে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here