‘জাতীয় মেধাসম্পদ সুরক্ষা সম্মাননা’ লাভ করায় প্রকৌশলী অঞ্জনকে সংবর্ধনা

107

অলোক কুমার আচার্য: পাবনার বেড়া উপজেলার কাশিনাথপুর বিজ্ঞান স্কুলের পরিচালক ও ওয়েসিস পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী আনোয়ারুল আজিম খান অঞ্জন স্বল্প খরচে উন্নতমানের পরিবেশবান্ধব জ্বালানী উদ্ভাবন করায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় থেকে ‘জাতীয় মেধাসম্পদ সুরক্ষা সম্মাননা’ লাভ করেছেন। তার এ অর্জনে মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) সকালে পাবনার অন্যতম বাণিজ্যকেন্দ্র কাশিনাথপুরে তাকে নাগরিক সংবর্ধনা দেয়া হয়। কাশিনাথপুর বিজ্ঞান স্কুল, কাশীনাথপুর নাগরিক কমিটি ও ওয়েসিস শিক্ষা পরিবার এই নাগরিক সংবর্ধনার আয়োজন করেন। প্রকৌশলী আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পাবনা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি আখতারুজ্জামান আখতার। এ সময় আনোয়ারুল আজিম খান অঞ্জনের অবদানের কথা তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন হুমায়ুন কবির, মাহবুব হোসেন, এমদাদুল হক, শফিকুল ইসলাম টুকু, জাফরুন্নাহার শেলী, আবু বকর সিদ্দিক, মোখলেসুর রহমান মুকুল প্রমূখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন ডা. আমিরুল ইসলাম সানু।

বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, এই প্রথম অত্র এলাকার কোন মানুষ এরকম একটি রাষ্ট্রীয় সম্মাননায় ভূষিত হলেন। এটা আমাদের এলাকাবাসীর জন্য গর্বের। প্রযুক্তিবিদ প্রকৌশলী আনোয়ারুল আজিম খান অঞ্জন তার গবেষণা সম্পর্কে বলেন, ‘সারা পৃথিবীতে জ্বালানী একটি খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বিশ্বব্যাপি জীবাশ্ম জ্বালানী ক্রমশ ফুরিয়ে আসছে, তাই প্রয়োজন নতুন কোন প্রযুক্তির, নতুন জ্বালানীর। নবায়নযোগ্য ও পরিবেশবান্ধব জ্বালানী সাম্প্রতিক সময়ে খুব গুরুত্বপূর্ণ গবেষণার ক্ষেত্র। নবায়নযোগ্য ও পরিবেশবান্ধব এই দুই এর সমন্বয় করে, বলতে গেলে ফেলনা কাঠের গুঁড়ো থেকে তিনি জ্বালানীটি তৈরি করেছেন বলে জানান। তিনি জানান, এই জ্বালানী তৈরির প্রক্রিয়া ও যন্ত্রপাতি সবই স্থানীয়ভাবে তৈরি যা তার গত দুই বছরের গবেষণার ফসল।

উল্লেখ্য, প্রযুক্তিবিদ প্রকৌশলী আনোয়ারুল আজিম খান অঞ্জন এর উদ্ভাবন ২০১৮ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর কপিরাইট সনদ পায়। এ বছর বিশ্ব কপিরাইট দিবসে গত ২৩ এপ্রিল সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আবু হেনা মোস্তফা কামাল তার হাতে ‘জাতীয় মেধাসম্পদ সুরক্ষা সম্মাননা’ স্মারকটি তুলে দেন চলতি বছরে ব্যক্তি পর্যায়ে একমাত্র তিনিই ওই সম্মাননা পান।