আবারও প্রমানিত হলো দেশের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির কি অবস্থা -ব্যারিষ্টার মওদুদ আহমেদ           

74
কালজয়ী রিপোর্ট: ফেনীর সোনাগাজী ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার কামেল পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফির হত্যাকান্ডের মাধ্যমে আবারো প্রমাণিত হলো এদেশের আইন শৃঙ্খলার কি অবস্থা।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যরিস্টার মওদুদ আহম্মদ বলেছেন মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত হত্যাকান্ডে প্রমাণিত হয়েছে দেশে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি হয়েছে। পুলিশ শুধু বিরোধী দল দমনে ব্যস্ত। দেশের  আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ পুলিশের কোন ভূমিকা থাকেনা। আমি রাজনৈতিক কারণে এই বক্তব্য দিচ্ছিনা। নুসরাত একজন কিশোরী মেয়ে। এই কিশোরী মেয়েটাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে তা অত্যন্ত ন্যাক্কারজনক ও হৃদয় বিদারক। একজন শিক্ষকের মেয়ে আরেক শিক্ষকের কাছে পরম আদরের সন্তানের মত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নিষ্পাপ মেয়েটি আরেকজন শিক্ষকের লালসার শিকার হতে হয়েছে। এই নৃশংস ঘটনায় আমরা নির্বাক ও হতবাক। এ ঘটনার বিচার দ্রুত বিচার আইনে হওয়া উচিৎ। তাহলে নুসরাতের আত্মা শান্তি পাবে। তার পরিবারের সদস্যরা শান্তি পাবে। শনিবার বিকালে আগুনে পুড়িয়ে নিহত মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির বাড়িতে গিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করে সমবেদনা জানিয়ে এসব কথা বলেন।
এসময় বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্যাহ বুলু, মোহাম্মদ শাহাজান, আবদুল আউয়াল মিন্টু, যুগ্ম মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন, চট্রগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক জালাল উদ্দিন মজুমদার, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবদুল লতিফ জনি, সাবেক মহিলা এমপি রেহানা আক্তার রানু, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুন রায়, জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট আবু তাহের, সাধারন সম্পাদক জিয়া উদ্দিন মিস্টার, প্রচার সম্পাদক গাজী হাবিব উল্যাহ মানিক, সোনাগাজী উপজেলা বিএনপির সভাপতি গিয়াস উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক জামাল উদ্দিন সেন্টু, পৌর বিএনপির সভাপতি ভিপি দুলাল, উপজেলা যুবদলের সাধারন সম্পাদক খুরশিদ আলম ভূঞা, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি সৈয়দ আলম ভূঞা, উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি জয়নাল আবেদীন বাবলু, সাধারন সম্পাদক সামছু উদ্দিন খোকন, সাবেক পৌর বিএনপির সভাপতি আলাউদ্দিন গঠন ও আবু তৈয়ব আজাদ সহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
পরে নেতৃবৃন্দ নুসরাতের কবর জিয়ারত করে মোনাজাত করেন। এদিকে বিকাল ৪টায় মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদফতরের পরিদর্শক মোঃ বাদশা মিয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং নুসরাতের বাড়িতে গিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানান। সাংবাদিকদের জানান ইতোঃমধ্যে অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাহ ও প্রভাষক আবছার উদ্দিনের এমপিও স্থগিত করা হয়েছে। বেতনও স্থগিত করা হৃযেছে। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here