তাড়াশ হাসপাতালের টিএলসির মৃত্যু

78

মহসীন আলী: সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলা ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের যক্ষা ও কুষ্ঠ নিয়ন্ত্রন কার্যালয়ের প্রধান (টিএলসি) রফিকুল ইসলাম (৪৫) এর মৃতে্যু হয়েছে।

রবিবার সকালে তাড়াশ উপজেলার পরিষদের মধ্যে ব্যাচেলর কোয়াটারের বাথরুম থেকে মৃত দেহ উদ্ধার করা হয়। মৃত টিএলসি রফিকুল ইসলামের গ্রামের বাড়ি রংপুর সদরের রামবল্লভপুর মহল্লায়

তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জামাল মিয়া শোভন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সকাল আটটার দিকে খবর পেয়ে সিভিল সার্জন মহোদয়কে জানানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, মৃতদেহের করোনা নমুনা নেয়া হবে ও য়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানোর জন্য পুলিশকে বলা হয়েছে।

ব্যাচেলর কোয়াটারের টিএলসির কাজের বুয়া মছিরন বিবি জানান, সকালে রান্না করতে এসে দেখি গেট ভেতর থেকে বন্ধ রয়েছে। অনেক ডাকাডাকি করে কোন সারা শব্দ না পেয়ে আশেপাশের লোকজনকে ডেকে জানাই। এ সময় উপজেলা জনস্বাস্থ্য অফিসের লোকজন ও পাশের মসজিদের মোয়াজ্জিন এসে তারাও ডাকাডাকি করেন। একপর্যায়ে ভেতর থেকে কোন সারা শব্দ না পেয়ে মসজিদের মোয়াজ্জিন আবুল কালাম মই দিয়ে ছাঁদে উঠে সিড়ি বেয়ে নেমে গেট খুলে দেয়। পরে ভেতরের বাথরুমের মধ্যে টিএলসি রফিকুল ইসলামের মৃতু দেহ পরে থাকতে দেখে উপজেলা হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জামাল মিয়া শোভনকে জানান তারা।

এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ জাহিদুল ইসলাম বলেন, টিএলসির মৃতে্যুর বিষয়টি জেনেছি এবং পুলিশকে জানানো হয়েছে। তারা কি গিয়ে তদন্ত করে জানাবেন। মৃতে্যুর ঘঁটনা স্বাভাবিক নাকি অস্বাভাবিক।

এ বিষয়ে তাড়াশ থানার ওসি মাহবুবুল আলম বলেন, এখন ঘটনাস্থলে আছি। মৃতু ব্যক্তির পরিবারের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে এবং মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।