রাজশাহীর সব থেকে বড় ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ম্যানেজার করোনা পজেটিভ

75

আবু কাওসার মাখন: রাজশাহী নগরের পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ম্যানেজার ফরিদ মো. শামিমের নমুনায় করোনা ধরা পড়েছে। বৃহস্পতিবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজের (রামেক) করোনা পরীক্ষা ল্যাবে তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

রাজশাহীর সবচেয়ে বড় এই ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ম্যানেজার করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় এটি লকডাউন করা হতে পারে। এ নিয়ে শুক্রবার সিদ্ধান্ত হতে পারে। শামিম করোনা আক্রান্ত হওয়ায় রাজশাহীর চিকিৎসক মহলে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

রামেকের ভাইরোলজি বিভাগের প্রধান প্রফেসর ডা. সাবেরা গুলনাহার জানান, দুই সিফটে মোট ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। যার মধ্যে ১৭৭ জনের ফল পাওয়া যায়। এদের মধ্যে মোট ৪ জনের নমুনায় করোনা ধরা পড়ে। বাকি ৩ জনের এক জন বাঘা উপজেলার ও নাচোল উপজেলার ২জন।

তিনি বলেন, পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ম্যানেজার ফরিদ মো. শামিম করোনায় আক্রান্ত হওয়া রাজশাহীর জন্য একটি বড় দু:সংবাদ। বৃহস্পতিবার তার ফল প্রকাশের আগে পর্যন্ত তিনি বিভিন্ন চিকিৎসকসহ রোগী, তাদের স্বজন ও প্রতিষ্ঠানটিতে কর্মরত অনেকের সংস্পর্শে এসেছেন। এছাড়া তিনি নিজ পরিবারের সদস্যদেরও সংস্পর্শে ছিলেন। এ নিয়ে চিকিৎসক মহলে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত কমিশনার রুহুল কুদ্দুস বলেন, এ বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিদ্ধান্ত নেবে। তারা যে সিদ্ধান্ত দেবে সেটি আমরা বাস্তবায়ন করবো।