বরুড়া আসনে মনোনয়ন দৌঁড়ে এগিয়ে মহাজোট শরীকদলের ও ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী 

294
সুজন মজুমদারঃ  একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের আগাম তৎপরতায় ভোটের হাওয়া বইছে কুমিল্লা-৮ (বরুড়া) আসনে। আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির (জাপা) মনোনয়নপ্রত্যাশী প্রার্থীদের ঘিরে স্থানীয় রাজনীতিতেও এখন চাঙ্গা ভাব। অভ্যন্তরীণ কোন্দল বাড়ার আশঙ্কাও রয়েছে। গত নির্বাচনে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে কুমিল্লা জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি অধ্যাপক নুরুল ইসলাম মিলন এমপি নির্বাচিত হন। সঙ্গত কারণে আগামী নির্বাচনে তিনি মনোনয়নপ্রত্যাশী। ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় নেতাকর্মীরা এবার জোটের শরিক হিসেবে কাউকে ছাড় দিতে নারাজ। তবে এই আসনে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে বিভক্তি থাকায় সুবিধা পেতে পারে বিএনপি।
জাতীয় সংসদের এই নির্বাচনী আসনটি বরুড়া উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন এবং একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত। বরুড়া বর্তমান মোট ভোটার ২ লাখ ৯৬ হাজার ১২৬ জন। পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৪৭ হাজার ৫১৪ জন এবং মহিলা ভোটার ১ লাখ ৪৮ হাজার ৬১২ জন। বরুড়া ভোট কেন্দ্র ৯৮ এবং ভোট কক্ষ ৫৬৮।  স্বাধীনতার পর এ আসনের চারটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন। বিএনপিও চারটি নির্বাচনে জয়লাভ করেছে। জাতীয় পার্টি এই আসন দখলে নিয়েছে দু’বার। ১৯৭৩, ১৯৮৬ ও ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের আবদুল হাকিম এই আসনের এমপি নির্বাচিত হন। ১৯৭৯ সালে বিএনপির আলী হোসেন এবং ১৯৮৮ সালে জাতীয় পার্টির মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া এমপি হন। ১৯৯১ ও ২০০১ সালে এমপি নির্বাচিত হন বিএনপির আবু তাহের। এমপি থাকা অবস্থায় ২০০৪ সালে তিনি মারা যান। উপনির্বাচনে বিজয়ী হয়ে তার বড় ছেলে জাকারিয়া তাহের এমপি নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালে এমপি হন বরুড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সদ্যগঠিত কমিটির আহ্বায়ক নাসিমুল আলম চৌধুরী নজরুল। সর্বশেষ নির্বাচনে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে জাপা থেকে মনোনয়ন পান সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক নুরুল ইসলাম মিলন। দলীয় নির্দেশনা মেনে নাসিমুল আলম চৌধুরীও তাকে সমর্থন দেন। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলামকে ৩৩ হাজার ৬৯৮ ভোটে পরাজিত করে অধ্যাপক মিলন এমপি নির্বাচিত হন।
আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরুড়া থেকে ১ ডজনের বেশি মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য  হেবিওয়েট মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন বরুড়া উপজেলা আওয়ামীলীগ আহবায়ক, সাবেক এমপি নাছিমুল আলম চৌধুরী নজরুল, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এড. কামরুল ইসলাম, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক ইন্জি. এনামুল হক মিয়াজী, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভুইয়া, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি, বর্তমান সংসদ সদস্য অধ্যাপক নরুল ইসলাম মিলন, বিএনপি কেন্দ্রীয় কর্মসংস্থান বিষয়ক সম্পাদক, সাবেক এমপি জাকারিয়া তাহের সুমন এবং বিএনপি কেন্দ্রীয় যুবদলের সিনিয়র সহ সভাপতি মোরতাজুল করিম বাদরু। বরুড়া প্রতিটি দলে একাধিক প্রার্থী রয়েছে। তবে বরুড়াতে মনোনয়ন দৌঁড়ে এগিয়ে রয়েছেন মহাজোটের শরীকদলের প্রার্থী নুরুল ইসলাম মিলন ও ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী জাকারিয়া তাহের সুমন। কারণ, মহাজোটের অন্যতম শরিক দল জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ এ আসনটি চায়। অন্যদিকে ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শরিক দল বিএনপি থেকে প্রার্থী দেওয়ার কথা রয়েছে। তবে সর্বশেষ দেখার বিষয়, এ আসনে কি ঘটতে যাচ্ছে!

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here