বিশাল জয়ে সিরিজ শেষ করল বাংলাদেশ

28

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় তথা শেষ টেস্ট বিশাল ব্যবধানে জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ। আজ মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচের পঞ্চম দিনের দ্বিতীয় সেশনেই বাংলাদেশ জিতে যায় ২১৮ রানের বড় ব্যবধানে। ৫ উইকেট নেন মেহেদী হাসান মিরাজ। প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেট নেওয়া তাইজুলও নেন ২ উইকেট। সিলেটে অনুষ্ঠিত প্রথম টেস্টে ১৫১ রানে হেরেছিল বাংলাদেশ। এই জয়ে সিরিজ শেষ হলো ড্রয়ে।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশকে ব্রেক থ্রু এনে দেন মুস্তাফিজুর রহমান। শন উইলিয়ামসকে (১৩) বোল্ড করে দিয়ে পুরো ম্যাচে প্রথম উইকেট শিকার করেন তিনি।  দলীয় ১২০ রানে পতন ঘটে তাদের চতুর্থ উইকেটের। অল-রাউন্ডার সিকান্দার রাজাকে দুর্দান্ত নৈপূণ্যে কট অ্যান্ড বোল্ড করে দ্বিতীয় শিকার ধরেন তাইজুল ইসলাম।

রাজার বিদায়ের পর জুটি গড়ার চেষ্টা করেন পিটার মুর এবং ব্রেন্ডন টেইলর। পঞ্চম উইকেট জুটিতে আসে ৬৬ রান। উইকেটে দুজনে কাটিয়ে দেন অনেকটা সময়। শেষ পর্যন্ত মেহেদী মিরাজের বলে পিটার মুর (১২) ইমরুলের তালুবন্দি হলে ভাঙে এই জুটি। এরপর দ্রুত রান নিতে গিয়ে রান-আউট হয়ে যান উইকেটকিপার চাকাভা (২)। এর সামান্য পরেই লিটন দাসের দুর্দান্ত ক্যাচে মেহেদী মিরাজের তৃতীয় শিকার হন ডোনাল্ড ত্রিপানো (০)।

সতীর্থদের যাওয়া-আসার মাঝেই দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ক্যারিয়ারের ৬ষ্ঠ সেঞ্চুরি তুলে নেন ব্রেন্ডন টেইলর। ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসেও তিনি ১১০ রানের ইনিংস খেলেছিলেন।  ব্রেন্ডন মাভুতা (০) মিরাজের বলে তাইজুলের তালুবন্দি হলে ৮ম উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। কাইলি জার্ভিস (১) মিরাজের ৫ম শিকার হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ২২৪ রানে শেষ হয়ে যায় জিম্বাবুয়ের ইনিংস। কারণ টেন্ডাই চাতারা ইনজুরির কারণে খেলতে পারেননি। ২১৮ রানের বিশাল জয় পায় বাংলাদেশ।

গতকাল বুধবার বাংলাদেশ ৬ উইকেটে ২২৪ রানে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের সামনে টার্গেট দাঁড়ায় ৪৪৩ রানের। দেওয়া পাহাড়সম টার্গেট মাথায় নিয়ে দিনের শেষ সেশনে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে জিম্বাবুয়ে। মিস ফিল্ডিংয়ের সুযোগে ব্রায়ান চারির আর হ্যামিল্টন মাসাকাদজার ওপেনিং জুটিতে আসে ৬৮ রান। মাসাকাদজাকে (২৫) মিরাজ এবং ব্রায়ান চারিকে তাইজুল ফিরিয়ে দিলে ২ উইকেটে ৭৬ রানে দিন শেষ করে জিম্বাবুয়ে।

দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের হয়ে সেঞ্চুরি হাঁকান অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ১২২ বলে ৪টি চার এবং ২টি ছক্কায় তিনি খেলেন অপরাজিত ১০১* রানের ইনিংস। প্রথম ইনিংসে বাংলদেশ ৭ উইকেটে ৫২২ রানে ইনিংস ঘোষণা করে। ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন মুশফিকুর রহিম (২১৯*)। এছাড়া ১৬১ করেছিলেন মুমিনুল হক। জবাবে প্রথম ইনিংসে ৩০৪ রানে অল-আউট হয় জিম্বাবুয়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here