চট্টগ্রামবাসীর উষ্ণ সংবর্ধনায় আবেগাপ্লুত ক্রিকেটার ইমন

294

তানভীর আহমেদ: বীর চট্টলার কৃতিসন্তান অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ জয়ী বাংলাদেশ দলের অপরিহার্য ওপেনার পারভেজ হোসেন ইমন কে জমকালো সংবর্ধনা প্রদান করেছে তার জন্মস্থান বন্দরনগরী চট্টগ্রামের খলিফাপট্টি এলাকাবাসী।আজ বিকেলে শত শত জাতীয় পতাকা উড়িয়ে, আতশবাজি- পটকা ফুটিয়ে, মোটরসাইকেল ও ট্রাক শোভাযাত্রা করে নগরীর দামপাড়া বাস স্টেশনে ইমনকে বরণ করতে যায় খলিফাপট্টি বাসী সহ চট্টগ্রামের সর্বস্তরের ক্রীড়ামোদী জনগন। ঠিক সন্ধ্যা সাতটায় দেশ ট্রাভেলস এর শীততাপ নিয়ন্ত্রিত বাসে করে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে অবতরণ করেন চট্টলার কৃতিসন্তান ইমন। সাথে সাথে উল্লাসে ফেটে পড়ে ইমনের জন্য অপেক্ষারত খলিফাপট্টি বাসী সহ চট্টগ্রামের হাজারো ক্রীড়ামোদী জনগন। এই সময় উপস্থিত জনতা বাংলাদেশ- বাংলাদেশ আর ইমন -ইমন স্লোগানে প্রকম্পিত করে তোলে চট্টগ্রামের রাজপথ। গোলাপ ফুলের পাঁপড়ি ছিটিয়ে এবং মিষ্টিমুখ করিয়ে তাকে বরণ করে নেয় খলিফাপট্টি বাসী। সংবর্ধনার জবাবে আবেগ আপ্লুত কন্ঠে পারভেজ হোসেন ইমন বলেন “খলিফাপট্টি বাসী সহ সমগ্র চট্টগ্রামবাসীর আজকের এই সংবর্ধনায় আমি অভিভূত এবং মুগ্ধ। চট্টগ্রামবাসীর দোয়ায় আমি যেন একদিন বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রতিনিধিত্ব করতে পারি। এই বিজয় সমগ্র বাংলাদেশের মানুষের বিজয়, এই বিজয় চট্টগ্রামবাসীর বিজয়, এই বিজয় খলিফাপট্টি বাসীর বিজয়। ” পরে এক বিশাল মোটর শোভাযাত্রা সহকারে পারভেজ হোসেন ইমন কে তার জন্মস্থান নগরীর খলিফাপট্টি এলাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে পূর্ব থেকে অপেক্ষামান আরো হাজারো জনতা তাকে একনজরে দেখতে ভিড় জমান তার বাড়ির সামনে। উল্লেখ্য বিশ্বকাপ অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেটের ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে দলের চরম বিপর্যয়ের সময় কুচকির ইনজুরিকে তোয়াক্কা না করে অদম্য মনোবল ও সাহস নিয়ে দেশ প্রেমের টানে ব্যাট হাতে নেমে ৪৭ রানের মহাকাব্যিক ইনিংস খেলে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন চট্টগ্রামের কৃতী সন্তান পারভেজ হোসেন ইমন।