মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ‘গারো’ সম্প্রদায়ে’র ওয়ানগালা উৎসব অনুষ্ঠিত

13

কে এস এম আরিফুল ইসলাম, মৌলভীবাজার:: মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলের ফুলছড়া (গারো লাইন) এলাকায় নৃতাত্বিক জনজাতিগোষ্টি ‘গারো’ সম্প্রদায়ে’র (জাতি) প্রধান ধর্মীয় ও সামাজিক উৎসব ওয়ানগালা উৎসব অনুষ্ঠিত। এই দিন ছোট বড় সবাই রঙবেরঙের পোশাক ও পাখির পালক মাথায় দিয়ে লম্বা ডিম্বাকৃতি ঢোলের তালে তালে নাচে। এই দিন হল বিনোদনের দিন। সারা গারো পাহাড় ঢোলের শব্দে মুখরিত হয়ে ওঠে। পুরুষ ও নারীরা দুইটি আলাদা সারি গঠন করে এবং নাচের তালে তালে এগিয়ে যান। সাথে থাকে মহিষের শিঙে বানানো এক ধরনের আদিম বাঁশির সুর।

রবিবার (১১ নভেম্বর) সকালে শ্রীচুক গারো যুব সংগঠনের আয়োজনে এ অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন এটি ওয়ান্না নামেও পরিচিত। সা-সাৎ-সাওয়া ধুপারিতের মধ্য দিয়ে অতিথিদের স্বাগত জানানো হয়। এরপর দিনব্যাপী আলোচনা সভা, সাংস্কুতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এরপর দুপুরে ওয়ানগালার মূল প্রবন্ধ পাঠ, আলোচনা এবং স্বাগত বক্তব্য দেওয়া হয়। এছাড়া, এতে বিভিন্ন খ্রিষ্টান ধর্মযাজকরা উপস্থিত ছিলেন। পরে ওয়ানগালার নাগড়া, আদুরী, দামা ও মোমবাতি প্রজ্জ্বলন এবং সর্বশেষ গারোদের নিজস্ব কৃষ্টির সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ওয়ানগালা উৎসব আয়োজক কমিটি সূত্রে জানা গেছে, এক সময় গারো পাহাড়ি এলাকায় জুম চাষ হতো এবং বছরে মাত্র একটি ফসল হতো। তখন ওই জুম বা ধান ঘরে উঠানোর সময় গারোদের শস্যদেবতা ‘মিসি সালজং’কে উৎসর্গ করে এ উৎসবের আয়োজন করা হতো। মূলত গারোরা ছিলো প্রকৃতিপূজারী কিন্তু কালের পরিক্রমায় গারোরা ধীরে ধীরে খ্রিস্টান ধর্মে দীক্ষিত হওয়ার পর তাদের ঐতিহ্যবাহী সামাজিক প্রথাটি এখন ধর্মীয় ও সামাজিকভাবে একত্রে করে পালন করা হয়। অর্থাৎ এক সময় তারা তাদের শস্যদেবতা মিসি সালজংকে উৎসর্গ করে ওয়ানগালা পালন করলেও এখন তারা নতুন ফসল কেটে যিশু খ্রিস্ট বা ঈশ্বরকে উৎসর্গ করে ওয়ানগালা পালন করেন। উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে অসংখ্য খ্রিস্টভক্ত এবং গারাগানজিং, কতচু, রুগা, মমিন, বাবিল, দোয়াল, মাতচি, মিগাম, চিবক, আচদং, সাংমা,মাতাবেং ও আরেং নামে ১২টি গোত্রের গারো সম্প্রদায়ের লোকজন উপস্থিত হয়েছেন। এদিকে, ওয়ানগালা উৎসব উপলক্ষ্যে বসেছে জমজমাট মেলা। মেলায় গারোদের ঐতিহ্যবাহী জিনিস ও শিশুদের নানা রকমের খেলনা বিক্রি করা হয়। ফলে এখানে গারো শিশু ও যুবক-যুবতীরা বিভিন্ন পসরার দোকানে তাদের পছন্দের জিনিস কিনতে ভিড়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here