1. bpdemon@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
  2. ratulmizan085@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
রংপুরের মিঠাপুকুরে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মাণ হলো নারী ইউপি সদস্যের বাড়িতে
বাংলাদেশ । শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২ ।। ১৯শে মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি
ব্রেকিং নিউজ
কুমিল্লা জেলার সদর দক্ষিণ মডেল থানা এলাকা হতে ৩৫ কেজি গাঁজা’সহ ০২জন মাদক কারবারি গ্রেফতার। তাড়াশে নিজের অন্ডকোষ নিজেই কাটলেন চাঁদপুর হিলশা সিটি রোটারী ক্লাবের দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠিত ভোলা যুব ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি (বিডিএস) সামাজিক সংগঠনের ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত দীর্ঘ ৭ বছর পর সিংগাইর উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন। সভাপতি মমতাজ বেগম এমপি,সম্পাদক ভিপি শহিদ চাঁদপুরে কিশোর গ্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে ২০ দিন ধরে হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছে যুবক ব্রাহ্মণপাড়ায় দুই মাদক কারবারিসহ গ্রেফতার ৩ মাধবপুরে সমাজসেবা অনুদান তুলে দেন, প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী রূপগঞ্জে জাতীয় সাহিত্য সম্মেলন রূপগঞ্জে মাসোহারা দিতে দেরি হওয়ায় নির্যাতন, এএসআই ক্লোজড

রংপুরের মিঠাপুকুরে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মাণ হলো নারী ইউপি সদস্যের বাড়িতে

মোতাহার হোসেন :
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২০৭ বার পড়েছে
রংপুরের মিঠাপুকুরে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মাণ হলো নারী ইউপি সদস্যের বাড়িতে

রংপুরের মিঠাপুকুরে সরকারিভাবে বরাদ্দ হওয়া আশ্রয়ন প্রকল্পের একটি ঘর উপকারভোগীর বাড়িতে না হয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির বাড়িতে নির্মাণ করা হয়েছে।সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে এলাকায় নানা আলোচনা চলছে।জানা যায়,মিঠাপুকুর উপজেলার ১৩নং গোপালপুর ইউনিয়নের বগেরবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা হোসেন আলীর ছেলে বেলায়েত হোসেন (৪৫) এর নামে একটি সরকারী পাকা ঘর বরাদ্দ দেয়া হয়।

কিন্তু ওই ঘর বেলায়েত হোসেনের বাড়ীতে না হয়ে হয়েছে একজন জনপ্রতিনিধির বাড়ীতে।ওই জনপ্রতিনিধি হলেন মোছাঃ মৌলুদা বেগম।তিনি ১৩নং গোপালপুর ইউনিয়নের ৪,৫ ও ৬নং সংরক্ষিত ওয়ার্ডের নারী সদস্য।সরেজমিনে দেখা যায়, উপকারভোগী বেলায়েত হোসেন বর্তমানে যে জায়গায় বসতবাড়ি করে আছেন তার পাশেই বিশাল এলাকাজুড়ে বনবিভাগের জায়গা রয়েছে।

কিন্তু অদৃশ্য কারনে তার নামে বরাদ্দকৃত ঘর নারী ইউপি সদস্যের বাড়ির ঘরের সাথেই নির্মাণ করা হচ্ছে।সরকারি জায়গা থাকার পরেও ওই নারী ইউপি সদস্যের বাড়িতে ঘর নির্মাণ হওয়ায় জনমনে সৃষ্টি হয়েছে নানা প্রশ্ন।নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন স্থানীয় বাসিন্দা জানান,সরকারি আশ্রয়ন প্রকল্পের উপকারভোগীর তালিকায় বেলায়েত হোসেনের নাম রয়েছে।তালিকায় স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার স্বাক্ষরে উপকারভোগীদের চুড়ান্ত তালিকা হওয়ার কথা শুনেছি।

কিন্তু বেলায়েত হোসেনের বসতভিটায় পাকা ঘরের কোনো অস্তিত্বই নেই।বাস্তবে তার নামে বরাদ্দ হওয়া ঘরটি নারী ইউপি সদস্য মৌলুদা বেগম তার নিজ বাড়িতে নির্মাণ করেছেন।তাই এনিয়ে এলাকায় সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।একই ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আব্দুল খালেক জানান,বেলায়েত হোসেনের সরকারিভাবে আশ্রয়ন প্রকল্পের একটি ঘর এসেছিল শুনেছিলাম।কিন্তু সেই ঘর কোথায় তা আমার জানা নেই।

এ ব্যাপারে বেলায়েত হোসেন বলেন,আমি ভ্যান চালিয়ে যা রোজগার করি তা দিয়েই স্ত্রী সন্তান নিয়ে কোনরকমে দিনযাপন করি।আমার বাড়িতে পাকা কোনো ঘর নাই।সরকারিভাবে ঘরের তালিকায় আমার নাম আছে।জায়গা না থাকায় মেম্বার জায়গা দিছে সেখানে ঘর নির্মাণ হচ্ছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ইউপি সদস্য মৌলুদা বেগম বলেন,ঘর নির্মাণের সময় জমি পাওয়া যাচ্ছিল না,তাই তাকে আমার বাড়ির পাশে জায়গা দিয়েছি।সেখানে ঘর নির্মাণ হচ্ছে।বিষয়টি এলাকার অনেকেই জানে।যার নামে ঘর বরাদ্দ হয়েছে তিনিই এই ঘরে বসবাস করবেন।

গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম দিলীপ পাইকাড় বলেন,যার নামে ঘর বরাদ্দ তিনিই ঘর পাবেন।যতটুকু জানি জমি না পাওয়া যাওয়ার কারণে সেখানে তার ঘর নির্মাণ হচ্ছে।তবে যথাযথ নিয়ম মেনেই ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে।যদি কোন অনিয়ম থাকে এর দায়ভার ইউপি সদস্যকেই নিতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
প্রকাশক কর্তৃক জেম প্রিন্টিং এন্ড পাবলিকেশন্স, ৩৭৪/৩ ঝাউতলা থেকে প্রকাশিত এবং মুদ্রিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Hi-Tech IT BD