1. bpdemon@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
  2. ratulmizan085@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
মাধবকুন্ড জলপ্রপাত স্থানীয়দের জন্য আশির্বাদ।
বাংলাদেশ । বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ ।। ২৩শে শাওয়াল, ১৪৪৩ হিজরি
ব্রেকিং নিউজ
দোয়ারাবাজারে অফিসার্স ক্লাবের উদ্যোগে ৫৭০ পরিবারে ত্রাণ বিতরণ তামাক আইন শক্তিশালী করতে পদক্ষেপ নিবে সরকার : আ.ক.ম মোজাম্মেল হক মাদ্রাসার সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ খোরশেদ আলমের প্রথম আলোচনা সভা মহালক্ষীপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষা সামগ্রী বিতরন ইবিতে আন্তর্জাতিক আলোকচিত্র প্রদর্শনী উৎসব শুরু বন্যার্তদের পাশে দাড়ালেন স্বাস্থ্য ও পঃ কর্মকর্তার ডাঃ আবু সালেহীন খান কচুয়ায় ৪ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার চাঁদপুরের মতলবে ভুয়া বিচারপতি আটক বন্যা পরিস্থিতির ভয়াবহতার মধ্যে সিলেট বিভাগে বয়ে গেছে কালবৈশাখী ঝড় সৈয়দপুরে নদীতে লাফ দিয়ে টিকটক করাকালে ডুবে গিয়ে কিশোরের মৃত্যু

মাধবকুন্ড জলপ্রপাত স্থানীয়দের জন্য আশির্বাদ।

তিমির বনিক:
  • প্রকাশিত: শনিবার, ৭ মে, ২০২২
  • ৬৫ বার পড়েছে

করোনা মহামারির কারনে দুইটি বছর চলে যায় ঘড়ে বসে নেই কোন আনন্দ। এবার ঈদুল ফিতরের ছুটিতে মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত দেখতে ঢল নেমেছে পর্যটকদের। স্থানীয় ব্যবসায়ী, ইজারাদারসহ সবার মধ্যেই আনন্দ বিরাজ করছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ঈদের দিন মঙ্গলবার থেকে শুক্রবার পর্যন্ত মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত ও ইকোপার্কে ১০ সহস্রাধিক পর্যটক প্রবেশ করেছেন। ঈদের দিন মঙ্গলবার মাধবকুণ্ডে বেড়াতে আসা বেশির ভাগই বড়লেখা ও আশপাশের উপজেলার।

ঢাকাসহ অন্যান্য এলাকারও দর্শনার্থী ছিলেন। তবে বুধবার ও বৃহস্পতিবার স্থানীয় লোকজন ছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পর্যটকরা বেড়াতে আসেন।মাধবকুণ্ড ইকোপার্কে প্রবেশের পথের আগে সড়কে প্রায় এক কিলোমিটার যানজটের দীর্ঘ লাইন। সেখানে যানজট নিরসনে কাজ করছিলেন ট্যুরিস্ট পুলিশের সদস্যরা।মাধবকুণ্ড ইকোপার্ক এলাকায় পৌঁছার পর দেখা যায় বিভিন্ন বয়সী মানুষের উপচে পড়া ভিড়। বিভিন্ন পণ্যের দোকান, খাবার হোটেলগুলোতে বেশি ভিড়।

জলপ্রপাত এলাকায় দলবেঁধে জলে নেমে হই হুল্লোড় আর আনন্দ-উল্লাস করছিলেন নানা বয়সী মানুষেরা। কেউ কেউ ঝর্নার পানিতে সাঁতার কাটছিলেন।আবার অনেকে পাড়ে দাঁড়িয়ে প্রায় ২০০ ফুট উপর থেকে অবিরাম ঝর্নার জলপতনের দৃশ্য ও আশপাশের সবুজ প্রকৃতি উপভোগ করছিলেন। কেউ আবার স্মৃতি হিসেবে ধরে রাখতে এসব দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করছিলেন।স্থানীয় মো.করিম উদ্দিন বলেন, ছবি তোলাই আমাদের ব্যবসা। করোনার সময় দুই বছর ঈদের সময় মাধবকুণ্ড বন্ধ থাকায় খুব কষ্ট হয়েছিল। এবারের ঈদে কোনো বাঁধা -নিষেধ নেই। তাই লোকজন আসছেন।

এ রকম লোকজন আসা অব্যাহত থাকলে আমরা ছবি তুলে রোজগার করতে পারব, পরিবার নিয়ে সাচ্ছন্দ্য মত খেয়ে পরে বেঁচে থাকতে পারবো।স্থানীয় কবির হোসেন বলেন, এবার ঈদের দিন থেকে অনেক লোকজন আসছেন। বিক্রিও ভালো হচ্ছে। গত দুই বছরে ঈদে বন্ধ থাকায় যে ক্ষতি হয়েছিল আশা করছি কিছুটা পুষিয়ে উঠতে পারব।বন বিভাগের বড়লেখা রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা শেখর রঞ্জন দাস বলেন, মঙ্গলবার থেকে শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত কয়েক হাজার পর্যটক ভেতরে প্রবেশ করেছেন। এ সংখ্যার হিসাব প্রায় ১০ সহস্রাধিক হবে। পর্যটকদের নিরাপত্তায় ট্যুরিস্ট পুলিশ ছাড়াও বনবিভাগ এবং ইজারাদের লোকজন সতর্কতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
প্রকাশক কর্তৃক জেম প্রিন্টিং এন্ড পাবলিকেশন্স, ৩৭৪/৩ ঝাউতলা থেকে প্রকাশিত এবং মুদ্রিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Hi-Tech IT BD