1. bpdemon@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
  2. ratulmizan085@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
মাছ চাষ করেই জিরো থেকে হিরো ঘোড়াঘাটের আশরাফুল
বাংলাদেশ । রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২ ।। ১লা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
ব্রেকিং নিউজ
কুমিল্লা জেলার সদর দক্ষিণ মডেল থানা এলাকা হতে ৩৫ কেজি গাঁজা’সহ ০২জন মাদক কারবারি গ্রেফতার। তাড়াশে নিজের অন্ডকোষ নিজেই কাটলেন চাঁদপুর হিলশা সিটি রোটারী ক্লাবের দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠিত ভোলা যুব ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি (বিডিএস) সামাজিক সংগঠনের ৭ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত দীর্ঘ ৭ বছর পর সিংগাইর উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন। সভাপতি মমতাজ বেগম এমপি,সম্পাদক ভিপি শহিদ চাঁদপুরে কিশোর গ্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে ২০ দিন ধরে হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছে যুবক ব্রাহ্মণপাড়ায় দুই মাদক কারবারিসহ গ্রেফতার ৩ মাধবপুরে সমাজসেবা অনুদান তুলে দেন, প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী রূপগঞ্জে জাতীয় সাহিত্য সম্মেলন রূপগঞ্জে মাসোহারা দিতে দেরি হওয়ায় নির্যাতন, এএসআই ক্লোজড

মাছ চাষ করেই জিরো থেকে হিরো ঘোড়াঘাটের আশরাফুল

আরিফুল জেমন
  • প্রকাশিত: শনিবার, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
  • ২৪৫ বার পড়েছে

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার ১নং বুলাকিপুর ইউনিয়নের দামোদরপুর গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে আশরাফুল মিয়া। মাছ চাষ করেই আজ জিরো থেকে হিরো হয়েছেন। অর্জন করেছেন অভাবনীয় সাফল্য। জানা যায়, ২০০০ ইং সালে অল্প কিছু পুঁজি নিয়ে মাছ চাষ শুরু করেন আশরাফুল মিয়া। উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার পরামর্শ ও অন্যান্য সহায়তায় প্রায় ২২ বছর পূর্বে নিজস্ব একটি ছোট পুকুর পরিষ্কার করে সেখানেই কার্প জাতীয় মাছ চাষ শুরু করেছিলেন।

তারপর থেকে অত্যান্ত পরিশ্রমী আশরাফুল মিয়াকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি। একের পর এক সাফল্য এসে ধরা দিয়েছে তার কাছে। বর্তমানে আশরাফুল মিয়া প্রায় ১৩.৩৬ হেক্টর বিঘা জলা বিশিষ্ট প্রায় ৯টি পুকুরে মাছ চাষ করছেন। পুকুরে রয়েছে রুই, কাতলা, মৃগেল, পাঙ্গাস, তেলাপুইয়া, মাগুর সহ বেশ কয়েকটি জাতের মাছ। আশরাফুল মিয়ার মাছ চাষের সফলতার গল্প এখন এলাকার মানুষের মুখে মুখে।

এ বিষয়ে আশরাফুল মিয়ার সাথে কথা হলে তিনি জানান, বর্তমানে পুকুরে ৪ থেকে ৫ কেজি ওজনের মাছ রয়েছে। প্রতিটি মাছের ওজন প্রায় ১ থেকে ৬ কেজি পর্যন্ত হয় । আমার মৎস্য খামারে প্রায় ১২ জন কর্মচারী নিয়মিত কাজ করে। মুলত তারাই মৎস্য বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী মাছের খাবার সহ কখন কিভাবে পরিচর্যা করতে হবে সেগুলো সঠিকভাবে তদারকী করে থাকেন।আশরাফুল মিয়া আহরিত মাছগুলি জীবন্ত অবস্থায় নিজ জেলা দিনাজপুর সহ রংপুর বিভাগের বিভিন্ন স্থানে বাজারজাত করে থাকেন। সব খরচ বাদ দিয়ে প্রতি বছরে ৭০ থেকে ৮০ লক্ষ টাকা আয় করেন বলে জানান তিনি।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল হান্নান জানান, সফল মৎস্যচাষী আশরাফুল মিয়া সব সময়ই মৎস্য বিভাগের নিকট থেকে নিয়মিত পরামর্শ ও সহযোগিতা গ্রহণ করেছেন। বর্তমানে তিনি বছরে ১৫০ মেট্রিক টন মাছ বাজার জাত করেন। মৎস্য কর্মকর্তা আরও বলেন, দেশের প্রতিটি উপজেলায় যদি একজন আশরাফুল মিয়া তৈরি হতো তাহলে দেশের মৎস্য সেক্টর আরো বেগবান হতো। আশরাফুল মিয়ার এই উদ্যোগের ফলে স্থানীয় অন্যান্য মৎস্যজীবীরা উৎসাহিত হয়ে মাছ চাষে উদ্ভুদ্ধ হলে বেকারত্ব দূরীকরণ সহ ব্যাপকভাবে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। সেই সাথে আর্থ সামাজিক অবস্থার উন্নতি তথা দেশে আমিষের চাহিদা পূরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
প্রকাশক কর্তৃক জেম প্রিন্টিং এন্ড পাবলিকেশন্স, ৩৭৪/৩ ঝাউতলা থেকে প্রকাশিত এবং মুদ্রিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Hi-Tech IT BD