1. bpdemon@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
  2. ratulmizan085@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
নওয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশের মাসিক স্টিকারে চলে বিশেষ যান অভিযোগ অসহায় চালকদের 
বাংলাদেশ । রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ ।। ১৮ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি
ব্রেকিং নিউজ
মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে অজ্ঞাত নারীর মরদেহ উদ্ধার নেত্রকোনা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে ট্রাক-পিক আপ ভ্যানের সংঘর্ষে নিহত-৩ প্রতিবন্ধীর জায়গা দখল,ন্যায়ের আশায় ঘুরছেন প্রশাসনের দুয়ারে মৌলভীবাজারে বিদ্যুৎপৃষ্টে নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর মৃত্যু কুমিল্লার বুড়িচং থানার অভিযানে গাঁজাসহ ২মাদক কারবারি আটক মুন্সীগঞ্জে হাতুড়ি পেটায় নিহত মীম হত্যা মামলায় আটক-১ চট্টগ্রামের আনোয়ারায় পৃথক পুলিশি অভিযানে ওয়ারেন্টভুক্ত ৪আসামী আটক কুমিল্লার চান্দিনায় বিশাল শোডাউন নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা সোহাগকে বরণ শেখ হাসিনার হাত ধরেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে-বেগম মতিয়া চৌধুরী চাঁদপুরে মেঘনায় নৌ পুলিশের অভিযানে ১৪লাখ মিটার কারেন্ট জাল ও মাছ জব্দ

নওয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশের মাসিক স্টিকারে চলে বিশেষ যান অভিযোগ অসহায় চালকদের 

কে.এম আলীঃ
  • প্রকাশিত: শনিবার, ২৪ জুলাই, ২০২১
  • ১১৫ বার পড়েছে

সারাদেশ ব্যাপী লকডাউনের প্রথম দিন (ঈদের তৃতীয় দিন) থেকেই নওয়াপাড়া হাইওয়ে থানা পুলিশের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অসহায় ভ্যান-রিকশা চালকের অভিযোগ, সরকার ঘোষিত বিধি নিষেধ শুধু মাত্র তাদের জন্যই প্রযোজ্য।তারা বলেন, নওয়াপাড়ার বিভিন্ন স্থানে হাইওয়ে থানা পুলিশের চেকপোষ্টগুলোতে অবাধে চলছে মটরসাইকেল, সিএনজি, ইজিবাইক, প্রাইভেট, মাইক্রোবাস ইত্যাদি। তাদের ক্ষেত্রে সরকারী বিধি নিষেধ প্রয়োগ না করলেও ভ্যান রিকশাগুলোর উপর নির্দয়ভাবে তা প্রয়োগ করা হচ্ছে।

নওয়াপাড়ার বিভিন্ন ব্যস্ততম সড়কগুলো ঘুরে দেখা যায়, স্বাস্থ্য বিধি না মেনে অবাধেই চলাচল করছে সিএনজি-ইজিবাইক প্রাইভেট, মাইক্রোবাস। অচত এদের ক্ষেত্রে নেই কোন আইনি কঠোরতা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন জানান, নওয়াপাড়ায় চলাচলরত প্রতি সিএনজি থেকে মাসিক ৭০০/- টাকা করে ৬০টি সিএনজি ও মাসিক ৫০০/- টাকা করে ১৫০টি ইজিবাইক থেকে মাসোহারা আদায় করে থাকে নওয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশ।আর মাসোহারা প্রদানকারীদের চিহ্নিত করতে প্রতিটি গাড়ি বিশেষ ষ্টিকার ব্যবহার করা হয় এবং স্টিকার বিহীন বাইরের গাড়িগুলো আটক করে সাদা কাগজে চালকের নাম ঠিকানা লিখে তাতে হাইওয়ে থানার সীল ব্যবহার করে চালককে দেওয়া হয় এবং প্রাইভেট, মাইক্রোবাস গুলোর মালিকেরা প্রভাবশালী হওয়ার দরুন তাদের গাড়িগুলো অবাধে চলে।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী চালক মোঃ নুর ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আমি ফুলতলা জামিরা রোডে গাড়ি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করি। গতকাল ২৩ জুলাই শুক্রবার আনুমানিক সকাল ১১.০০টায় অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগী পৌছে দিয়ে ফুলতলায় ফিরছিলাম।পথিমধ্যে আকিজ সিটি সেন্টারে পৌছালে হাইওয়ে পুলিশ আমার গাড়ি আটক করে সীল সম্বলিত একটি সাদা কাগজ ধরিয়ে দেয়। মানবিক কারণে রোগী বহন করাটাই আমার জন্য যেন কাল হয়ে দাড়াল।

ভুক্তভোগী আরও এক চালক বরুণ বিশ্বাস সাংবাদিকদের বলেন, আমি ২৪ জুলাই শনিবার ফুলতলার পায়গ্রাম কসবা থেকে সদ্য করোনা নেগেটিভ আসা রোগীর ডায়াবেটিস পরীক্ষা করার জন্য নওয়াপাড়াতে আসি।এ সময় হাইওয়ে পুলিশ আমার বক্তব্য অগ্রাহ্য করে গাড়িটি আটক করে এবং সীল মারা একটি সাদা কাগজ ধরিয়ে দেয়।

এ বিষয়ে জানতে নওয়াপাড়া হাইওয়ে থানার ইনচার্জ আব্দুল্লাহর মুঠোফোনে বার বার কল দেওয়া হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।পরবর্তীতে নওয়াপাড়া হাইওয়ে থানার সার্জেন্ট জাহাঙ্গীরের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি মাসোয়ারা গ্রহনের বিষয়টি অস্বীকার করে সাংবাদিককের বলেন, সরকারী নির্দেশ মোতাবেক রোগী বহনকারী কোন গাড়ি আমরা আটকাইনা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
প্রকাশক কর্তৃক জেম প্রিন্টিং এন্ড পাবলিকেশন্স, ৩৭৪/৩ ঝাউতলা থেকে প্রকাশিত এবং মুদ্রিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Hi-Tech IT BD