1. bpdemon@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
  2. ratulmizan085@gmail.com : Daily Kaljoyi : Daily Kaljoyi
কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হচ্ছেন ১১ চেয়ারম্যান!
বাংলাদেশ । বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২ ।। ২১শে জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হচ্ছেন ১১ চেয়ারম্যান!

নেকবর হোসেন:
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৪ জানুয়ারি, ২০২২
  • ৪৮ বার পড়েছে
কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হচ্ছেন ১১ চেয়ারম্যান
কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হচ্ছেন ১১ চেয়ারম্যান

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সব কটিতেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয় পেয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় এই ১১ ইউপিতে ভোটগ্রহণ হচ্ছে না। ফলে শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) আনুষ্ঠানিকভাবে এই ১১ প্রার্থীকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় কুমিল্লা জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মঞ্জুরুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।জেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, গত ৩ জানুয়ারি ছিল মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। ওই দিন উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনীত একক প্রার্থীরা মনোনয়ন জমা দেন। আর বাকি চারটি ইউনিয়নে একাধিক প্রার্থী থাকলেও বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে আওয়ামী লীগ ছাড়া অন্য সব প্রার্থীই তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন।

এতে বাইশগাঁও ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের আলমগীর হোসেন, লক্ষ্মণপুরে মহিন উদ্দিন চৌধুরী, হাসনাবাদে কামাল হোসেন এবং সরসপুরে আবদুল মান্নানের বিজয় নিশ্চিত হয়ে যায়। এর আগে গত ৩ জানুয়ারি একক মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া অন্য ইউনিয়নগুলোর সাত প্রার্থী হলেন, ঝলম দক্ষিণ ইউনিয়নে আশিকুর রহমান হাওলাদার, নাথেরপেটুয়া ইউনিয়নে আবদুল মান্নান চৌধুরী, বিপুলাসার ইউনিয়নে ইকবাল মাহমুদ, ঝলম উত্তর ইউনিয়নে আবদুল মজিদ খান রাজু, উত্তর হাওলা ইউনিয়নে আবদুল হান্নান হিরণ, খিলা ইউনিয়নে আল আমিন ভূঁইয়া ও মৈশাতুয়া ইউনিয়নে মফিজুল রহমান।

নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মঞ্জুরুল আলম জানান, শুধু চেয়ারম্যান পদেই নয়, মনোহরগঞ্জের ১১টি ইউনিয়নের মধ্যে বিপুলাসার ইউনিয়নে ৯টি সাধারণ ওয়ার্ড এবং তিনটি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এছাড়া উপজেলার মৈশাতুয়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য পদে এবং ঝলম উত্তর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ বিষয়ে জানতে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. নাজির হোসেন মিয়ার সঙ্গে চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা যায়নি।

জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মো.মঞ্জুরুল আলম বলেন, একাধিক প্রার্থী না থাকায় মনোহরগঞ্জের কোনো ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ভোটগ্রহণ হচ্ছে না। তিনটি ইউনিয়নের ১১টি সদস্য পদে ভোটগ্রহণ হবে। গত ১৮ ডিসেম্বর ষষ্ঠ ধাপে মনোহরগঞ্জ উপজেলার ১১টি ইউপির নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করা হয়। তফসিল অনুযায়ী, গত ৩ জানুয়ারি মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ছিলো। ৬ জানুয়ারি মনোনয়নপত্র বাছাই হয়। ১৩ জানুয়ারি প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন আর আগামী ৩১ জানুয়ারি ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) হওয়ার কথা ছিল ভোটগ্রহণ।

মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিনে ১১টি ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ১৬ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৪০ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ১৩৮ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
প্রকাশক কর্তৃক জেম প্রিন্টিং এন্ড পাবলিকেশন্স, ৩৭৪/৩ ঝাউতলা থেকে প্রকাশিত এবং মুদ্রিত।
প্রযুক্তি সহায়তায় Hi-Tech IT BD